সকাল ০৬:১০, শনিবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২২, ৮ মাঘ

ফের অ্যাশেজে ‘বির্তকে’র জন্ম দিলেন বেন স্টোকস

অ্যাশেজে শুরু থেকেই টানটান উত্তেজনা চলছে। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডকে ১৪৭ রানে অলআউট করে অস্ট্রেলিয়া। এরপর বৃষ্টির কারণে আর খেলা হয়নি। দ্বিতীয় দিন অস্ট্রেলিয়া ব্যাট করতে নামলে বিতর্কে জড়ালেন বেন স্টোকস। পরপর চারটি 'নো বল' করে বসেন স্টোকস। আর সেটা খেয়ালই করেননি আম্পায়ার। যা নিয়ে তৈরি হয়েছে তীব্র বিতর্ক।

তখন অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ১ উইকেটে ৩৭ রান। ব্যাটিং করছিলেন ওয়ার্নার, বোলিং করছিলেন স্টোকস। ব্রিটিশ পেসারের ওভারের প্রথম চারটি বলই ছিল 'নো বল'। কিন্তু প্রথম তিনটি বলে বুঝতেই পারেননি আম্পায়ার। চতুর্থ বলটিতে যখন আউট হন ওয়ার্নার, তখন বিষয়টি নজরে আসে। পরে দেখা যায়, ওভারের প্রথম চারটি বলই নো-বল ছিল। 

গ্যাবা টেস্টের দ্বিতীয় দিনের এক সেশনেই স্টোকস ১৪টি 'নো বল' করেন। তার মধ্যে মাত্র দুইটি বলকে 'নো বল' দেন আম্পায়ার। বাকি ১২টি বলই আম্পায়ারের চোখ এড়িয়ে যায়। তবে সম্প্রচারকারী প্রতিষ্ঠান সেভেন ক্রিকেটের প্রতিবেদনে বের হয় এই 'নো বল' কাহিনী। তুমুল সমালোচনা করেন সাবেক ক্রিকেটাররা। 'নো বল' শনাক্তকরণ প্রযুক্তিতেও কেন এই বলগুলো ধরা হলো তা নিয়ে ওঠে প্রশ্ন।

স্টোকসের এই টানা চার 'নো বলের' জন্য আম্পায়ারকেই দোষ দিয়েছেন সাবেক অজি অধিনায়ক রিকি পন্টিং। তিনি বলেন, 'কেউ যদি এগুলো পর্যবেক্ষণ করার পরেও 'নো বল' না দেয়, তা হলে সেটা খুবই দুঃখজনক। আমার কাছে মনে হয়, এগুলো 'নো বল' ছিল। ওভারের প্রথম বলটিই যদি আম্পায়ার ধরিয়ে দিতেন, তা হলে হয়ত স্টোকস নিজেকে শুধরে নিতে পারত।'

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদকর্মী ও ধারাভাষ্যকার অ্যালিসন মিচেল চ্যানেল সেভেনকে বলেন, 'এই টেস্ট শুরুর আগে আইসিসিকে যে প্রযুক্তি সরবরাহ করা হয়েছে, তা ঠিকমতো কাজ করেনি। অর্থাৎ এই টেস্ট ম্যাচ ২০২০ সালের আগের কন্ডিশনে খেলা হচ্ছে, যেখানে শুধু উইকেট নেওয়ার ডেলিভারিতেই দেখা হতো বোলারের পা দাগ পেরিয়ে গেছে কি না।'

অস্ট্রেলিয়ার আম্পায়ার সাইমন টোফেলও মাঠের আম্পায়ারদের এই সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছেন। তিনি বলেন, 'এখন তো প্রযুক্তির সাহায্যে সব বল পর্যবেক্ষণ করার কথা। আমি বুঝতে পারছি না, কেন এই বলগুলো পর্যবেক্ষণ করা হলো না। মাঠের আম্পায়ারদের সাহায্য করার জন্য তো আইসিসির প্রযুক্তিবিদরাও রয়েছেন।'

পরবর্তীতে জানা গেল, গ্যাবা টেস্টের জন্য বরাদ্দকৃত 'নো বল' শনাক্তকরণ প্রযুক্তিটিতে নাকি ম্যাচ শুরুর আগেই সমস্যা দেখা যায়। ফলে এই ম্যাচে আর সেটির পূর্ণ সুবিধা নেওয়া সম্ভব হয়নি। আর ব্যবস্থাপনার এই ভুলের মাশুল দিতে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলকে।

Share This Article


শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে ভার্চুয়াল আলোচনা চান শাবি শিক্ষার্থীরা

পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

বাড়তে পারে শীত

বাবার সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হবে মেয়ে

তথ্য যাচাই-বাচাই না করে বিদেশিরা লোক অভিযোগ করে

নাচের ভিডিও ভাইরাল হওয়াই কাল হলো পুলিশ কনস্টেবলের

স্বাস্থ্যবিধি মানছে না কুয়াকাটা সৈকতের পর্যটকরা

ঋষভ পন্থের নতুন রেকর্ড

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত আরও ১১ হাজার ৪৩৪

জিএম কাদেরের রোগমুক্তির জন্য কেরানীগঞ্জে দোয়া

এক অলরাউন্ডারের ব্যাটিংয়ে মান বাঁচল বরিশালের

সব পরীক্ষা স্থগিত করলো জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

এ বছরই চালু হবে পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল ও কর্ণফুলী টানেল

নিজদের প্রথম ম্যাচে এবারও পাকিস্তানের মুখোমুখি ভারত

জনগণের সরকার ফিরিয়ে আনতে হবে: খন্দকার মোশাররফ