রাত ০২:১১, বুধবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২২, ৫ মাঘ

বিষধর সাপের কামড়েও ঘোড়া মরে না কিন্তু কেন?

ফিচার ডেস্ক:  

বিষাক্ত সাপের বিষে হাতিসহ অন্যান্য প্রাণি মারা গেলেও কয়েকটি মাত্র প্রাণি আছে যারা সাপের বিষে মরে না। এমন একটি প্রাণী হচ্ছে ঘোড়া।

সাপের কামড়ে ঘোড়া মরে না। তিনদিন অসুস্থ থাকে, তারপর সুস্থ হয়ে যায়। আর এই ঘোড়া থেকে আসে পৃথিবীর সব সাপের বিষের প্রতিষেধক (এন্টি ভেনম)।

পৃথিবীতে খুব অল্প সংখ্যক প্রাণি নিজের শরীরে সাপের বিষ প্রতিরোধের ওষুধ তৈরি করতে পারে।


যেমন:বেজি, উট, ঘোড়া, হাঙ্গর। কোন একটি সাপ, ধরুন, কিং কোবরা’র এন্টি ভেসম তৈরি করতে হলে যা করতে হয় তা হল, ওই সাপের বিষ ঘোড়ার শরীরে ঢুকিয়ে দিতে হয়।

প্রচুর পরিমাণ ঢোকালেও সমস্যা নেই। ঘোড়ার কিছু হয় না। কিছু হয় মানে সহজ করে বললে ঘোড়া মরবে না। তবে ঘোড়া তিনদিন অসুস্থ থাকবে।

এরপর সুস্থ হয়ে যাবে। এই তিনদিনে ঘোড়ার রক্তে ওই সাপের বিষের এন্টি ভেনম তৈরি হয়ে যাবে।

ঘোড়ার শরীর থেকে রক্ত নিয়ে তার লাল অংশ আলাদা করা হয়। সাদা অংশ অর্থাত্‍ ম্যাট্রিক্স থেকে এন্টি ভেনাম আলাদা করা হয়।

ঘোড়া স্বাস্থ্যবান প্রাণি এবং এর শরীরে অনেক রক্ত থাকে। এর শরীর থেকে বেশি পরিমাণ রক্ত নিলেও নিলেও এর কোন ক্ষতি হয় না।

গড়ে প্রতি ঘোড়া থেকে প্রায় ৬ লিটার রক্ত নেওয়া যায়। এতো বেশি পরিমাণ নেয়ার পরও ঘোড়ার তেমন ক্ষতি হয় না।

এখন এই এন্টি ভেনমের শুদ্ধিকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে বোতলজাত করে  বাজারে সরবরাহ করা হয়। সাপের প্রতিধেষক হিসেবে যা খুবই কার্যকরি।

চিকেন পক্সের এন্টিবডি এবং সাপের বিষের এন্টি ভেনমের মূলনীতি প্রায় একই। চিকেন পক্সের ক্ষেত্রে এন্টিবডি তৈরি করে আমাদের শরীর । আর সাপের বিষের ক্ষেত্রে সেটি তৈরি হয় ঘোড়ার শরীরে। এই এন্টি ভেনম সাপে কাটা রোগীর শরীরে ইনজেকশন করলে এন্টি ভেনম শরীরে থাকা ভেনমকে অকার্যকর করে রোগীর জীবন বাঁচায়।

 

Share This Article


গণধর্ষণ

প্রেমিককে খুঁজতে এসে যেভাবে ৫-৭ জন দ্বারা ধর্ষণের শিকার হলো তরুণী

তসলিমা নাসরিন

মারা গেছেন তসলিমা নাসরিন!

ফাইল ফটো

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বাসা ভাড়া, বাচ্চা জন্মের পর অস্বীকার প্রেমিকের!

কারণ ছাড়াই বাড়ছে প্রাইম ইসলামী লাইফের ইন্স্যুরেন্সের দর

ফাইল ফটো

যেভাবে জনসংখ্যা বৃদ্ধি ঠেকাচ্ছে মিসর

ফাইল ফটো

দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর স্পিডবোট ব্যবসা বন্ধের অভিযোগ

মাসরুর আরেফিন

দ্বিতীয় মেয়াদে সিটি ব্যাংকের এমডি মাসরুর আরেফিন

আগের কার্যদিবসেই সূচকের অবস্থান

২৪ জানুয়ারি ম্যারিকোর বোর্ড সভা

বৈধ আমদানি সনদ ছাড়া এলসিতে নিষেধাজ্ঞা

ফাইল ফটো

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ৩ মার্চ

ফাইল ফটো

এক দিনে ৮৪০৭ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১০: স্বাস্থ্য অধিদফতর

ফাইল ফটো

গাড়ি চালাচ্ছিলেন আসামি, পেছনে বসেছিলেন সেই দুই এসআই!

ফাইল ফটো

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হচ্ছে কিনা, যা জানালেন দীপু মনি

ফাইল ফটো

এবার ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী পরিবর্তন!