রাত ০১:৪৮, বুধবার, ১৮ মে, ২০২২, ৪ জ্যৈষ্ঠ

স্ত্রীর নামে কুকুরের নাম রাখায় প্রতিবেশীর শরীরে আগুন দিলেন যুবক!

স্ত্রীর নামে কুকুরের নাম
স্ত্রীর নামে কুকুরের নাম

বাড়িতে সন্তানের মতো করেই পোষা কুকুর পালন করেছিলেন এক গৃহবধূ। কিন্তু পোষা প্রাণীর নাম নিয়েই যত বিপত্তি। কারণ তার কুকুরের ও প্রতিবেশী যুবকের স্ত্রীর নাম একই। 

নাম পরিবর্তন না করায় ওই গৃহবধূর গায়ে আগুন দিয়ে খুনের চেষ্টা করে প্রতিবেশী যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের গুজরাটের ভাবনগরে। গৃহবধূর নাম নীতাবেন সারভাইয়া। খবর নিউজ বাজের।

 

খবরে বলা হয়, নিজের স্ত্রীর নামে প্রতিবেশী কুকুরকে ডাকেন, তা মোটেও সহ্য হচ্ছিল না ওই যুবকের। তাই অপমানের বদলা নিতে মোক্ষম আঘাত হানলেন ওই যুবক। ওই নারীকে রীতিমতো খুন করার চেষ্টা করলেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গুজরাটের ভাবনগরের বাসিন্দা নীতাবেন তার পোষা কুকুরকে আদর করে ডাকতেন সনু নামে। তার প্রতিবেশী সুরাভাই ভারওয়াদের স্ত্রীর ডাকনামও সনু। স্থানীয় সময় সোমবার বিকালে নীতাবেনের স্বামী এবং বড় ছেলে বাড়িতে ছিলেন না। ছোট ছেলে এবং পোষা কুকুরটিকে নিয়ে বাড়িতে ছিলেন নীতাবেন।

সেই সময় সুরাভাই আরও পাঁচ জনকে সঙ্গে নিয়ে নীতাবেনের বাড়িতে গিয়ে তাকে তার পোষ্য কুকুরের নাম বদলের কথা বলেন। কিন্তু নীতাবেন তাতে রাজি না হওয়ায় দুপক্ষের কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় সুরাভাই অভিযোগ করেন যে, নীতাবেন ইচ্ছা করে তার কুকুরের নাম সনু রেখেছেন। এরপর নীতাবেন রান্নাঘরে গেলে তিন জন তাকে অনুসরণ করে সেখানে যান। একজন তার গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এরপর তারা সেখান থেকে পালিয়ে যান।

নীতাবেনের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন। এ সময় তার স্বামীও বাড়িতে পৌঁছান। স্বামীর গায়ে থাকা কোট দিয়ে নীতাবেনের শরীরের আগুন নেভানো হয়। এরপর নীতাবেনকে নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

এদিকে, সুরাভাই ও বাকি পাঁচজনের বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টা, অনুমতি ছাড়া কারো বাড়িতে প্রবেশ, সম্মানহানিসহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

Share This Article


১০০ টাকা ছাড়িয়েছে খোলা বাজারে ডলারের দাম

আবারো বাড়লো স্বর্ণের দাম

বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশের ত্রিদেশীয় সিরিজ

নর্থ সাউথের ১০টি বিলাসবহুল গাড়ি বিক্রির নির্দেশ

পল্লবীর মৃত্যু: অভিনেত্রীর প্রেমিক গ্রেপ্তার

প্লাস্টিক সার্জারি করাতে গিয়ে ২১ বছর বয়সী অভিনেত্রীর মৃত্যু

বড়বোনের বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

আমাকে হানিমুনে গিয়েই মেরে ফেলতে চেয়েছিল :

করোনা নিয়ন্ত্রণে এবার সেনা নামাল উত্তর কোরিয়া

‘যুদ্ধ বন্ধের’ পথ বন্ধ হয়ে গেছে: রাশিয়া

হাসপাতালে ভর্তি বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস

দাপুটে শেষ টাইগারদের!

পি কে হালদারকে হস্তান্তরে সময় লাগবে : দোরাইস্বামী

পদ্মা সেতুর চূড়ান্ত টোল নির্ধারণ

আরও ১০ দিনের রিমান্ডে পি কে হালদার