বিকাল ০৩:০৮, বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ

ডাকাতিয়ায় সরিষায় ঝুঁকছে চাষিরা

খুলনা প্রতিনিধি:
খুলনার ফুলতলা উপজেলাধীন বিল ডাকাতিয়া, মশিয়ালি ও গিলাতলা এলাকায় চলতি মৌসুমে সরিষা চাষ কৃষি বিভাগের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। সেখানে ফসলের মাঠে সরিষা ফুলের হলুদের সমারোহ। হলুদ রাজ্যে মৌমাছির গুঞ্জন এবং বাতাসে দুলতে থাকা ফুলে দোল খাচ্ছে কৃষকের রঙিন স্বপ্ন।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে ফুলতলা উপজেলায় আটরা গিলাতলা ইউনিয়নে সরিষা চাষ লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অনেক বেশি হয়েছে। আমন আর বোরো ফসলের মাঝখানে কৃষকরা সরিষা চাষকে বোনাস হিসেবে দেখছে। সরিষা তুলে সে জমিতে আবার বোরো আবাদ করা যায়। এতে কৃষিজমির সর্বাধিক ব্যবহার নিশ্চিত হয়। একসময় কৃষকরা আমন ধান কাটার পর জমি পতিত ফেলে রাখত। সময়ের সাথে সাথে তা পুরোটাই পাল্টে গেছে। আমন ধান কাটার পর জমিতে সরিষা লাগাতে হয়। মাত্র ৭০ থেকে ৮০ দিনের মধ্যে ফসল কৃষক ঘরে তুলতে পারে।

আটরা গিলাতলা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ও কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, এখন সরিষা চাষ খুবই লাভজনক একটা আবাদ। অতি অল্প সময়ে, অল্প পুঁজিতে এ ফসল চাষ করা যায়। এক বিঘা (৩৩ শতাংশ) জমিতে সরিষা আবাদ করতে খরচ হয় দেড় থেকে দুই হাজার টাকা। যদি সঠিকভাবে পরিচর্যা করা যায় তাহলে প্রতি বিঘায় ফলন হয় পাঁচ থেকে ছয় মণ সরিষা। গিলাতলা দক্ষিণপাড়া এলাকার চাষি হালিম জানান, দুই বিঘা জমিতে সরিষা চাষ করেছি। প্রতি বিঘা জমিতে দেড় হাজার টাকা করে ব্যয় হয়েছে। সরিষার ফুলে ক্ষেত ভরে গেছে। আর কোনো সমস্যা না হলে বিঘাপ্রতি পাঁচ থেকে ছয় মণ সরিষা পাওয়া যাবে।

বিল ডাকাতিয়া এলাকার গ্রামের কৃষক আফসার মিয়া বলেন, আমন ধান কাটার পর দুই বিঘা জমিতে সরিষা চাষ করেছি। আশা করছি বেশ ভালো ফলন হবে। এই সরিষা বিক্রি করে বোরো আবাদের তেল ও সার কেনার টাকা জোগাড় হয়ে যাবে। পাড়িয়ারডাঙ্গা গ্রামের কৃষক আলী হোসেন বলেন, ধান আবাদে কোনো লাভ নেই, উৎপাদন খরচই ওঠে না। সরিষা আবাদে এক থেকে দুইবার সেচ দিলে চলে। বাজারদর ভালো হলে এক মণ সরিষা ১৭০০-১৮০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করা যায়।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ইনসাদ ইবনে আমিন বলেন, সরিষা মূলত একটি মসলা জাতীয় ফসল। স্বল্প সময়ের মধ্যে কৃষককে অধিক ফলন পেতে নানাভাবে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে, যাতে কৃষকের কোনো সমস্যা না হয়। আশা করছি প্রাকৃতিক কোনো বিপর্যয় না ঘটলে এবার সরিষার বাম্পার ফলন হবে।

Share This Article


৩১ বছর পর সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে মুক্তি পাচ্ছেন রাজীব গান্ধীর হত্যাকারী

মানবতাবিরোধী অপরাধে ৩ জনের ফাঁসির আদেশ

এবার মিলল আরেক অভিনেত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ

কঙ্গনা রানাউত

দুর্ধর্ষ সিক্রেট এজেন্টের ভূমিকায় কঙ্গনা

দেশজুড়ে দাবদাহ, থাকবে আরও ‍দুইদিন

মেয়ের জন্য ৩৬ বছর ধরে পুরুষ সেজে আছেন তিনি

সিলেটের ৫৩৬ কিলোমিটার সড়ক ডুবে গেছে

৭ তলা থেকে লাফ দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

মঞ্চ মাতাতে ঢাকায় আসছেন শিল্পা শেঠি

এক জাহাজ পেট্রল কেনার টাকাও নেই শ্রীলঙ্কার

১৫ বছরের ইতিহাসে বিরল ঘটনার সাক্ষী হল আইপিএল

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে আসত অন্য মেয়ে!

রাশিয়া-ইউক্রেনে যুদ্ধ বিশ্বব্যাপী দুর্ভিক্ষ ডেকে আনবে

হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ল ২২ মে পর্যন্ত

বন্যায় দুর্ভোগে নগরবাসী, কবে ফিরবেন মেয়র আরিফ