রাত ০২:২৫, বুধবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২২, ৫ মাঘ

‘ভণ্ড পীরের মুরিদ হওয়ায় মেয়েকে আটকে রাখত, শিক্ষক হতে চেয়েছিল ইলমা’

ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নৃত্যকলা বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী ইলমা চৌধুরী মেঘলার (২৪) মৃত্যুর ঘটনায় তার বাবা সাইফুল ইসলাম চৌধুরী মামলা করেছে। মামলার এজাহারে বলা হয়, নির্মমভাবে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে তাকে। ইলমা চৌধুরী মেঘলা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃত্যকলা বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন।

 

চার বোনের মধ্যে ইলমা চৌধুরী (২৫) ছিলেন বড়। লেখাপড়া শেষ করার আগেই বিয়ে হয় কানাডা প্রবাসী ইফতেখার আবেদীনের সঙ্গে। ইচ্ছে ছিল মাস্টার্স শেষ করে শিক্ষকতা পেশায় যুক্ত হওয়ার। কিন্তু সেই আশা অপূর্ণই থেকে গেলো ইলমার।

এক গণমাধ্যমকে নিহত ইলমার বাবা সাইফুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আমার মেয়ে লেখাপড়ায় অনেক ভালো ছিল। ইলমা আমাকে বলেছিল বিসিএস দিয়ে শিক্ষক হবে। হঠাৎ তার সঙ্গে ইফতেখারের পরিচয় হয় ফেসবুকে। আমরা প্রথমে রাজি ছিলাম না পরে অনেক চাপাচাপির পর রাজি হই। তারা আমার মেয়েকে নির্যাতন করে হত্যা করেছে। তার শরীরের সব জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার মা ও কথিত বাবা সবাই মিলে আমার মেয়েকে মেরে ফেলেছে।

তিনি আরও বলেন, সে নৃত্যকলায় পড়ত তার স্বামী ভাবত তার চলাফেরা অনেক খারাপ। সে তার চুল কেটে ছোট করে হিজাব পরা শুরু করে। বিয়ের দিন থেকে ইফতেখার আমার মেয়েকে নির্যাতন করত। অত্যাচার থেকে বাঁচতে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় ইলমা। আমরা জানতাম ইফতাখারের বাবা একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা অফিসার। পরে জানি এটা তার আসল বাবা নয়। তার মা ওই সেনা অফিসারকে ২য় বিয়ে করেছেন।

তিনি বলেন, আমাদের কাছে তারা সব কিছু লুকিয়েছে। সে ফ্রান্সে একটি বিয়ে করেছিল। সেই ঘরে একটা সন্তান আছে। পরে তাকে ডিভোর্স দিয়ে আমার মেয়েকে বিয়ে করেছে। এটা জানতে পেরেছি বিয়ের পর। তারা এক ভণ্ড পীরের মুরিদ হওয়ায় আমার মেয়েকে সবসময় আটকে রাখত। বাইরে বের হতে দিত না। ১১ ডিসেম্বর ইফতেখার দেশে এসেছে সেটা আমরা জানতাম না। তার (ইলমার) মোবাইলে সবসময় চেক করত আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করত কি না। শেষ পর্যন্ত তারা আমার মেয়েকে নির্যাতন করে মেরেই ফেলল।

Share This Article


গণধর্ষণ

প্রেমিককে খুঁজতে এসে যেভাবে ৫-৭ জন দ্বারা ধর্ষণের শিকার হলো তরুণী

তসলিমা নাসরিন

মারা গেছেন তসলিমা নাসরিন!

ফাইল ফটো

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বাসা ভাড়া, বাচ্চা জন্মের পর অস্বীকার প্রেমিকের!

কারণ ছাড়াই বাড়ছে প্রাইম ইসলামী লাইফের ইন্স্যুরেন্সের দর

ফাইল ফটো

যেভাবে জনসংখ্যা বৃদ্ধি ঠেকাচ্ছে মিসর

ফাইল ফটো

দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর স্পিডবোট ব্যবসা বন্ধের অভিযোগ

মাসরুর আরেফিন

দ্বিতীয় মেয়াদে সিটি ব্যাংকের এমডি মাসরুর আরেফিন

আগের কার্যদিবসেই সূচকের অবস্থান

২৪ জানুয়ারি ম্যারিকোর বোর্ড সভা

বৈধ আমদানি সনদ ছাড়া এলসিতে নিষেধাজ্ঞা

ফাইল ফটো

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ৩ মার্চ

ফাইল ফটো

এক দিনে ৮৪০৭ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১০: স্বাস্থ্য অধিদফতর

ফাইল ফটো

গাড়ি চালাচ্ছিলেন আসামি, পেছনে বসেছিলেন সেই দুই এসআই!

ফাইল ফটো

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হচ্ছে কিনা, যা জানালেন দীপু মনি

ফাইল ফটো

এবার ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী পরিবর্তন!