রাত ০১:৫৫, বুধবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২২, ৫ মাঘ

পুলিশের গুলিতে যুক্তরাষ্ট্রে নিহতের তথ্য দিলেন সজিব ওয়াজেদ জয়

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের বিচারবহির্ভূত হত্যা ও নৃশংসতা নিয়ে ব্যাপক হতাশা ও ক্ষোভ রয়েছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোয় দেশটির পুলিশের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার প্রতিবাদে বিশ্বজুড়ে বিক্ষোভও হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে গত কয়েক বছরে পুলিশের গুলিতে কী পরিমাণ মানুষ নিহত হয়েছেন সেই তথ্যের একটি ছক উপস্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

রোববার (১২ ডিসেম্বর) রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ডের একটি ছক উপস্থাপন করেন তিনি। যেখানে ২০১৩ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত দেশটিতে পুলিশের হাতে নিহতের সংখ্যা উল্লেখ করা আছে। 

টিআরটি ওয়ার্ল্ডের পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, দেশটিতে ২০১৩ সালে পুলিশের গুলিতে ১১০৬ জন, ২০১৪ সালে ১০৫০ জন, ২০১৫ সালে ১১০৩ জন, ২০১৬ সালে ১০৭১ জন, ২০১৭ সালে ১০৯৫ জন, ২০১৮ সালে পুলিশের গুলিতে সর্বোচ্চ ১১৪৩ জন এবং ২০১৯ সালে ১০৯৮ জন নিহত হয়েছেন। অর্থাৎ ২০১৩ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছর গড়ে প্রায় ১১০০ মানুষ পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছেন।

টিআরটি ওয়ার্ল্ডের খবর বলা হয়, ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ১ হাজার ২০০ জনেরও বেশি কৃষ্ণাঙ্গ পুলিশের হাতে নিহত কিংবা গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এ পরিসংখ্যানে যারা পুলিশি হেফাজতে কিংবা অন্য পদ্ধতিতে নিহত হয়েছেন, তাদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।

২০১৪ সালের আগস্টে মাইকেল ব্রাউন নামে ১৮ বছর বয়সী এক হাইস্কুল শিক্ষার্থী পুলিশের গুলিতে নিহত হন। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে অহিংস বিক্ষোভ হয়েছে। লাখ লাখ মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছেন। সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে পুলিশের সহিংসতার সমাধানে মার্কিন সামাজিক ও রাজনৈতিক অঙ্গনে সামনে থেকে কাজ করছে ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার আন্দোলন।

২০২০ সালের ২৫ মে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবককে আটক করার সময় হাঁটু দিয়ে ঘাড় চেপে ধরে তাকে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশ। পুলিশের নির্যাতন থেকে বাঁচতে ‘আমি শ্বাস নিতে পারছি না’ বলেও আকুতিও করেছিলেন ফ্লয়েড। কিন্তু পুলিশ তার প্রতি কোনো করুণা করেনি।

ওই একই বছরের মার্চে নিজ বাড়িতে ব্রিওন্না টেইলর নামে এক নারীকে হত্যা করে পুলিশ। সিএনএনর খবরে বলা হয়, তার ঘরে ঢুকে পুলিশ তাকে আটবার গুলি করেছিল। কিন্তু এসব সত্ত্বেও আমেরিকার পুলিশ সংস্কার নিয়ে কোনো উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না।

Share This Article


গণধর্ষণ

প্রেমিককে খুঁজতে এসে যেভাবে ৫-৭ জন দ্বারা ধর্ষণের শিকার হলো তরুণী

তসলিমা নাসরিন

মারা গেছেন তসলিমা নাসরিন!

ফাইল ফটো

স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বাসা ভাড়া, বাচ্চা জন্মের পর অস্বীকার প্রেমিকের!

কারণ ছাড়াই বাড়ছে প্রাইম ইসলামী লাইফের ইন্স্যুরেন্সের দর

ফাইল ফটো

যেভাবে জনসংখ্যা বৃদ্ধি ঠেকাচ্ছে মিসর

ফাইল ফটো

দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর স্পিডবোট ব্যবসা বন্ধের অভিযোগ

মাসরুর আরেফিন

দ্বিতীয় মেয়াদে সিটি ব্যাংকের এমডি মাসরুর আরেফিন

আগের কার্যদিবসেই সূচকের অবস্থান

২৪ জানুয়ারি ম্যারিকোর বোর্ড সভা

বৈধ আমদানি সনদ ছাড়া এলসিতে নিষেধাজ্ঞা

ফাইল ফটো

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ৩ মার্চ

ফাইল ফটো

এক দিনে ৮৪০৭ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১০: স্বাস্থ্য অধিদফতর

ফাইল ফটো

গাড়ি চালাচ্ছিলেন আসামি, পেছনে বসেছিলেন সেই দুই এসআই!

ফাইল ফটো

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হচ্ছে কিনা, যা জানালেন দীপু মনি

ফাইল ফটো

এবার ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী পরিবর্তন!