Templates by BIGtheme NET
২৫ বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ৮ মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২৫ রমজান, ১৪৪২ হিজরি
Home » রাজধানী » করোনা হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র ফ্রি নগরবাসীর জন্য : আতিকুল

করোনা হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র ফ্রি নগরবাসীর জন্য : আতিকুল

প্রকাশের সময়: মে ৩, ২০২১, ৯:০৩ অপরাহ্ণ

রাজধানীর মহাখালীতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মার্কেটে নির্মিত ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) জন্য রোগীদের কোনো অর্থ দিতে হবে না। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আওতাধীন নগরবাসীরা এই হাসপাতালের আইসিইউ সুবিধা ফ্রিতেই অর্থাৎ বিনামূল্যেই পাবেন।

সোমবার (৩ মে) এই করোনা হাসপাতালে দু’টি অ্যাম্বুলেন্স ও একটি লাশবাহী গাড়ি উপহার দেন ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম।

গাড়িগুলোর হস্তান্তর শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিং কালে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, এখানে আইসিইউর জন্য কোনো রোগীর কাছ থেকে কোনো ধরনের অর্থ নেওয়া হচ্ছে না। আমরা আজ দুটো অ্যাম্বুলেন্স ও একটি লাশবাহী গাড়ি বিনামূল্যে দিলাম। এর রক্ষণাবেক্ষণের জন্য যত খরচ সেটাও আমরা দেবো। রোগীদের কাছ থেকে এসব বাবদ কিছুই নেওয়া হবে না। কারণ সেবা সবার আগে।

ডিএনসিসির মার্কেটটিকে হাসপাতালে রূপান্তর করতে ২৮৫টি দোকানের বরাদ্দ বাতিল করতে হয়েছে বলেও জানান আতিক। আর এর জন্য আর্থিক ক্ষতিও হয়েছে। আতিক বলেন, ডিএনসিসি এই মার্কেটে ২৫৮টি দোকান বরাদ্দ দিয়েছিল। এ থেকে রাজস্ব পাওয়া যেত। কিন্তু আমরা বোর্ডসভার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেই এখানে কোনো দোকান বরাদ্দ আমরা দেবো না, বরং যে দোকানগুলো আছে তাদের বরাদ্দ বাতিল করবো। আমরা মেসেজ দিতে চাই, মানুষের প্রয়োজনে পাশে দাঁড়ানোর জন্য ডিএনসিসি ২৫৮টি দোকান বরাদ্দ দিয়ে তা বাতিল করেছে।

‘সরকারের নিয়ম অনুযায়ী আমাদের এক লাখ ৮৫ হাজার স্কয়ার ফিটের যে ভবন রয়েছে এই বিল্ডিংয়ের ভাড়াও থাকতে হবে। কিন্তু সেবার কোনো বিকল্প নেই। তাই এই হাসপাতালের যে ভাড়া রয়েছে তাও আমরা মওকুফ করে দিলাম। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মহাখালী করোনা হাসপাতালের ভাড়া বাবদ প্রতি মাসে প্রায় ৭০ লাখ টাকা আসার কথা।

এসময় ডিএনসিসি এলাকায় দোকানপাট ও শপিং সেন্টারে স্বাস্থ্যবিধি মানতে আবারও সবাইকে সতর্ক করেন ডিএনসিস মেয়র। দোকান ও শপিংমলে স্বাস্থ্যবিধি মানা না হলে সেগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন।

আতিক বলেন, আপনারা দোকানিরা কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অঙ্গীকার দিয়ে দোকান খুলেছেন, আপনারা আপনার প্রতিষ্ঠানে নিজেরা এবং ক্রেতাদের মাস্ক পরা নিশ্চিত করার দায়িত্ব আপনাদেরই। তাই এ বিষয়ে আপনারই নিশ্চিত করুন। অন্যথায় বুধবার থেকে আমি নিজে মার্কেট পরিদর্শন করবো এবং যারা মাস্ক পরে থাকবেন না তাদের দোকান বন্ধ করে দেবো। আপনারা ব্যবসা করুন কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি, মাস্ক পরার নির্দেশ মানতে হবে আপনাদের।

অ্যাম্বুলেন্স ও গাড়ি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাসার মোহম্মাদ খুরশীদ আলম, হাসপাতালটির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসির উদ্দিন, প্রধান নির্বাহী সেলিম রেজাসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

four + 12 =