Templates by BIGtheme NET
১১ মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
Home » জাতীয় » কোটি মানুষের কর্মসংস্থানে নির্মিত হচ্ছে ১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চল

কোটি মানুষের কর্মসংস্থানে নির্মিত হচ্ছে ১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চল

প্রকাশের সময়: জানুয়ারি ১৩, ২০২১, ২:০৭ অপরাহ্ণ

মোহাম্মাদ এনামুল হক এনা: এক সময় যে এলাকা ছিল প্রায় জনশূন্য পরিত্যক্ত ধূ ধূ বালুচর, উলুবন আর গো-চারণ ভূমি, সেখানেই এখন ফুটে উঠছে এক অনন্য বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি। চট্টগ্রামের মিরসরাই, সীতাকুণ্ড ও ফেনীর ৩৩ হাজার একর বিস্তীর্ণ জমিতে গড়ে উঠছে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর’।

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) তথ্যমতে, ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে একশ’টি অর্থনৈতিক জোন বা অঞ্চল গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার। যার মাধ্যমে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সর্ববৃহৎ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে উঠবে বাংলাদেশে। যেখানে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে এককোটি মানুষের। যার প্রথমধাপে তৈরি হওয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরীতে কাজ করবেন ১৫ লাখ মানুষ।

অর্থনীতিবিদরা বলেন, এক শ’টি অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের পর শুধু ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থানই সৃষ্টি হবে না, বছরে অতিরিক্ত ৪০ বিলিয়ন ডলারের পণ্যও রফতানি হবে। উন্নত দেশ হতে বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে।

বেজা’র তথ্যমতে, সব মিলিয়ে বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)র মাধ্যমে গত বছর করোনা মহামারীর মধ্যেই বিনিয়োগ প্রস্তাব এসেছে ৩৯৮ কোটি ডলারের। আর নিবন্ধিত হয়েছে ১ হাজার ৫২৯ বিনিয়োগকারী। যার মধ্যে দেশীয় উদ্যোক্তাদের অংশ ৩৪৮ কোটি ডলার। এর মধ্যে চীন, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ডস, কোরিয়া, সিঙ্গাপুর এবং যুক্তরাজ্যের দেশগুলো থেকে সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগ প্রস্তাব এসেছে।

ইতোমধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে ২৬টি শিল্প প্রতিষ্ঠান উৎপাদন শুরুর অপেক্ষায় রয়েছে। এছাড়াও ৩৭টি শিল্প প্রতিষ্ঠান নির্মাণাধীন।

সরকার আশা করছে, আগামী ১০ বছরের মধ্যেই পুরোপুরি তৈরি হবে দেশের ১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চল। এ পর্যন্ত তিনটি সরকারি ও ১০টি বেসরকারি অর্থনৈতিক অঞ্চলে মোট এক হাজার ৭৮৫ কোটি মার্কিন ডলারের বিদেশী বিনিয়োগ প্রস্তাব এসেছে। যা বাংলাদেশী মুদ্রায় দেড় লাখ কোটি টাকারও বেশি।

এদিকে, জাপান ও চীনের জন্য প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে আলাদা অর্থনৈতিক অঞ্চল। জাপানী অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে নারায়ণগঞ্জের আড়াই হাজারে। দুই ধাপে সেখানে মোট জমি দাঁড়াবে এক হাজার একরের মতো। আর চীন চট্টগ্রামের আনোয়ারায় ৭৮৩ একর জমিতে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

4 × 4 =