Templates by BIGtheme NET
১৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ২৮ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ , ১২ রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
Home » বিশেষ সংবাদ » ফ্রান্সের পক্ষে বিপক্ষে যারা

ফ্রান্সের পক্ষে বিপক্ষে যারা

প্রকাশের সময়: অক্টোবর ২৯, ২০২০, ৪:০০ অপরাহ্ণ

ফ্রান্সে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (স.)-একটি ব্যাঙ্গ কার্টুন প্রদর্শনের প্রেক্ষিতে মুসলিম তরুণের হাতে এক শিক্ষকের মাথা কাটা ঘিরে উত্তপ্ত গোটা বিশ্ব। ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাক্রোঁ মুসলিম মৌলবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ডাক দেয়ার পর তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও রোষানলে ফুলে ফেপে ওঠে গোটা বিশ্ব।

মাক্রোঁর বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মুসলিম দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান সরাসরি প্রতিবাদ জানিয়েছেন। আবার তার পক্ষেও কথা বলেছেন অনেক দেশের নেতা।

ফরাসী প্রেসিডেন্টের বিপক্ষে এ পর্যন্ত সরাসরি রাষ্ট্রীয়ভাবে অবস্থান নিয়েছে তুরস্ক, পাকিস্তান, ইরান, মিসর, সৌদি আরব, কুয়েত, কাতার সরকার। এছাড়া কঠোর প্রতিবাদ আর নিন্দা জানিয়েছে ফিলিস্তিন, আলজেরিয়া এবং জর্ডানও।

তারা অতিসত্তর ফরাসী প্রেসিডেন্টকে ক্ষমা চাওয়ার কথা বলেছেন। এমন অনেক দেশ বয়কট করেছেন ফরাসী পণ্য।

ফরাসি প্রেসিডেন্টের ইসলাম নিয়ে বিরুপ কর্মকাণ্ডে আয়ারল্যান্ড, ডেনমার্ক ও পর্তুগালে বসবাসরত অধিকাংশ মুসলমান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রতিবাদমূলক স্ট্যাটাস দিয়ে- ইসলাম, প্রিয় নবী নিয়ে এসব ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদ করেন।

ফরাসী প্রেসিডেন্টের বিপক্ষে যেমন মুসলিম বিশ্বের নেতারা কথা বলেছেন তেমনি তার পক্ষেও সরাসরি অবস্থান নিয়েছেন অনেক অমুসলিম দেশের নেতারাও। এই তালিকায় রয়েছে জার্মানি, ইতালি, স্পেন, ভারত, ব্রিটেন, নেদারল্যান্ডস ও কানাডা।

বিভিন্ন দেশের নেতারা মাক্রোঁর পাশে আছেন বলে বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন৷ ফলে স্পষ্টতই বিভাজন দেখা যাচ্ছে৷

মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে পড়াতে গিয়ে স্যামুয়েল প্যাটি নামে ৪৭ বছর বয়স্ক ওই স্কুল শিক্ষক ক্লাসে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (স.)কে নিয়ে কার্টুন দেখান। এতে ১৮ বছরের এক চেচেন তরুণ ওই শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

four × four =