Templates by BIGtheme NET
১২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ২৭ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ , ১১ রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
Home » জাতীয় » চার দফা বন্যা ২০ বিলিয়ন টাকার ফসল খেয়েছে

চার দফা বন্যা ২০ বিলিয়ন টাকার ফসল খেয়েছে

প্রকাশের সময়: অক্টোবর ২৭, ২০২০, ৩:৫৭ অপরাহ্ণ

দেশের ৩৭ জেলায় বিধ্বস্ত বন্যার ফলে ২০ বিলিয়ন টাকার আমন ধান ও অন্যান্য ফসল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। যার কারণে বিভিন্ন ফসলের দাম দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর (ডিএই)।

ডিএই জানিয়েছে, প্রায় ১,৫০০ হেক্টর জমির আমন ধান পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বন্যায়। চতুর্থ দফা বন্যায় ২৪ জেলায় আমন ধান ছাড়াও কাঁচা মরিচ, চিনা বাদাম ও শীতকালীন শাক-সবজি ধ্বংস করে দিয়ে গেছে। তাতে ক্ষতি হয়েছে ৬.৯৬ বিলিয়ন টাকা।

এই বছর দেশের বহু জেলায় চার ধাপের বন্যায় ফসলের ক্ষতিসহ জীবিকা ও ঘরবাড়ির ধ্বংস করে দিয়ে গেছে। ফসলের মারাত্মক ক্ষতির ফলে কিছু প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রীর দাম যেমন- ধান, পেঁয়াজ, আলু এবং শাক-সবজির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।

দেশের মোট ১, ৪৫, ৪৮০ হেক্টর জমি বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। ডিএই অনুসারে, ৯,১৪৬ হেক্টর জমির ফসল শেষ পর্যায়ে বন্যার মাধ্যমে সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে। বন্যায় আমন ধান, শীতের সবজি, কাঁচা মরিচ, চিনাবাদাম, মুগ ডাল আরও কয়েকটি ফসল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

প্রায় ২,৯৮৪ হেক্টর জমিতে শাকসবজি ও প্রায় ৪,২২৫ হেক্টর জমিতে মুগ ডাল সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে। আমন ধান বেশিরভাগ চতুর্থ দফার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এবং শাকসবজি ও মরিচসহ অন্য ফসলেরও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

কৃষি বিভাগ জানায়, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের সহায়তায় বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজ হাতে নিয়েছে সরকার। কৃষকদের জন্য সকল প্রকার প্রযুক্তিগত, পরামর্শ ও অন্যান্য সহায়তা দিচ্ছে যাতে কৃষকরা জমিতে বিকল্প ফসলের চাষ করতে পারে।

সেপ্টেম্বরের শেষদিকে দেশের হাজার হাজার কৃষক যখন তাদের জমিতে ফসল চাষ করছিল তখন চতুর্থ ধাপের বন্যা এসে তা তলিয়ে নিয়ে যায়।

বন্যার কারণে জমিতে পড়ে থাকা টনে টন কাদা ও ধ্বংসাবশেষ অপসারণের জন্য অর্থ ও শ্রম ব্যয় করে হাজার হাজার কৃষক তাদের জমি চাষের জন্য প্রস্তুত করে তুলেছিল। এর মধ্যেই মরার ওপর খাড়ার গা হয়ে আসে নতুন ধাপের বন্যা।

আমন ধান দেশের দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ প্রধান খাদ্য এবং দেশের মোট ধান উৎপাদনের ৩৮ শতাংশ আসে আমন ধান থেকে।

এর আগে ১৯ আগস্ট কৃষি মন্ত্রণালয় জানায়, তিনটি পর্যায়ের বন্যায় দেশের ৩৭ জেলায় ১৩.২৩ বিলিয়ন টাকার ফসলের ক্ষতি হয়েছে। বন্যার ফলে মোট ২, ৫৭, ১8৮ হেক্টর জমির ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে এবং ১,৮৮,৮১৪ হেক্টর জমিতে ফসলের ক্ষতি হয়েছে।

৩২,২২৩ হেক্টর জমিতে ৩.৩৪ বিলিয়ন টাকার আউশ ধান, ৭০,৮২০ হেক্টর জমিতে ৩৮০ কোটি টাকার আমন ধান ও ১৩৫ কোটি টাকার ৭,৯১৭ হেক্টর আমন বীজতলা ও সবজির ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া আরো ২১১ কোটি টাকার পাটও ক্ষতিগ্রস্ত রয়েছে।

বন্যার প্রথম পর্যায়ে ২৫ জানুয়ারী থেকে ৯ জুলাই পর্যন্ত ১৪ টি জেলার ৪১,৯১৮ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এ সময় কমপক্ষে ৩,৪৩,৯৯৭ জন কৃষকতে অনেক লোকসান গুণতে হয়েছে এবং ৩.৪৯ বিলিয়ন টাকার ফসল নষ্ট হয়েছে বলে জানান কৃষিমন্ত্রী।

১১ জুলাই থেকে ১২ আগস্ট পর্যন্ত দ্বিতীয় এবং তৃতীয় পর্যায়ের বন্যার ফলে ৩৭ জেলার ১,১৬,৮৯৬ হেক্টর জমিতে ১৪ ধরণের ফসল নষ্ট হয় তাতে ৯.৭৪ বিলিয়ন টাকার ফসল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এবং ৯,২৯,১৯৪ কৃষক প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

four + 8 =