Templates by BIGtheme NET
১১ আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ , ৮ সফর, ১৪৪২ হিজরি
Home » করোনাভাইরাস » বাঙালির গতিময় জীবনে ‘করোনা’ যেন ইতিহাস!

বাঙালির গতিময় জীবনে ‘করোনা’ যেন ইতিহাস!

প্রকাশের সময়: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০, ৯:০৪ অপরাহ্ণ

৬৬ দিন ঘরবন্দী থাকার পর গত ৩০ মে থেকে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনে ফেরতে শুরু করেছে সাধারণ মানুষ। প্রায় ৬ মাসের মাথায় বলতে গেলে পুরোটাই স্বাভাবিক হয়েছে জীবনযাত্রা। হাট-বাজার, শপিংমল, অফিসপাড়া, মসজিদ সর্বত্রই পুরনো ধারার গতিতে ফিরেছে। বেড়েছে মানুষ, বেড়েছে কাজের চাপ। কর্মচাঞ্চল্য আর মানুষের উচ্ছ্বাসে মুখর শহরের অলি-গলি। করোনা ধকল চললেও শহর ফিরেছে আগের গতিতে। বাঙালীর গতিময় জীবনে করোনা যেন ইতিহাসের খাতায় চলে যাচ্ছে। যদিও করোনার ভ্যাকসিন মেলেনি এখনও। করোনার মধ্যেই দৃশ্যমান এখন প্রতিদিনের জীবনযুদ্ধ।

জানা যায়, দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সরকার ২৬ মার্চ থেকে সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে। সেই ছুটির মেয়াদ দফায় দফায় বাড়িয়ে ৩০ মে পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া হয়। ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে সবকিছু খুলে দেয়া হয়। সর্বশেষ ৩১ আগস্ট মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা আদেশেও কিছুটা শিথিলতা এসেছে।

সরজমিনে দেখা গেছে, মার্চ থেকে শুরু হওয়া স্থবিরতা সেপ্টেম্বরে এসে পুরোটাই স্বাভাবিক হয়ে গেছে। মানুষের গতিবিধি কার্যক্রম দেখে এখন বোঝার উপায় নেই করোনার আতঙ্ক আছে কিনা। মুখে মাস্ক ব্যবহার করলেও বেশিরভাগই মুখের নিচে থুতনিতে রাখতেই পছন্দ করছেন। তবে অফিসপাড়ার মানুষগুলো নিয়মিত মাস্ক পরে অফিস করেন। টেলিভিশনে করোনার বুলেটিনে আগ্রহ নেই মানুষের। অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের মানুষ অনেকেই কাজ হারিয়ে নতুন কাজের সন্ধানে নেমেছেন। কেউ আবার দীর্ঘদিন পর অফিস করছেন নতুন অভিজ্ঞতার আলোকে। বর্তমানে গুরুত্বপূর্ণ কিছু মিটিং অনলাইনে অনুষ্ঠিত হলেও রাজনৈতিক সভা সেমিনার বা মানববন্ধন শহরের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে দৃশ্যমান। গাড়িও চলছে আগের মতো স্বাভাবিকভাবেই। রাস্তায় যানজটও আছে। দীর্ঘবন্দী জীবন শেষে শহর আগের চেহারায় ফিরছে এতেই অনেকে খুশি।

রাজধানী ঘুরে দেখা যায়, মানুষের ভিড় আর কেনাকাটায় সরগরম ফুটপাথ থেকে বিভিন্ন মার্কেট, শপিংমল। অনেক ব্যবসায়ী দোকানে বিক্রি বাড়ায় বেশ খুশিও। মসজিদে মসজিদে আগের চেয়ে বেড়েছে মুসল্লিদের সংখ্যাও। ওয়াক্তের নামাজের পাশাপাশি জুমার নামাজে প্রতিটি মসজিদ মুসল্লিতে ভরপুর। কোন কোন মসজিদে এখনও শারীরিক দূরত্ব মানা হচ্ছে আবার কোন মসজিদে গায়ে গায়ে লাগিয়ে নামাজ আদায় হচ্ছে।

এছাড়া, এখানো পুরোপুরি স্বাভাবিক না হলেও আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে শুরু হয়েছে ফ্লাইট চলাচল। পুরোদমে সচল হতে চলেছে রেল যোগাযোগ। দীর্ঘ বিরতির পর ধাপে ধাপে আন্তঃনগর, মেল ও লোকাল ট্রেন চালু করা হচ্ছে। চলাচল করছে মালবাহী ট্রেনও।

শুধু ব্যতিক্রম শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেলায়। মার্চ থেকে এখানো বন্ধ রয়েছে দেশের বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এই পরিস্থিতির কারণে ইতোমধ্যে বাতিল করা হয়েছে পিএসসি ও জেএসসি পরীক্ষা। এখনো নেওয়া সম্ভব হয়নি এইচএসসি। তবে ফল প্রকাশ হয়েছে এসএসসির। শুরু হয়েছে ভর্তি কার্যক্রমও। খুব শীঘ্রই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে বলে আশা প্রকাশ করছেন শিক্ষার্থীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

19 + ten =