Templates by BIGtheme NET
২২ শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ৬ আগস্ট, ২০২০ ইং , ১৫ জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
Home » ব্রেকিং নিউজ » করোনাকালে বিএনপি জনগণের পাশে না গিয়ে টেলিভিশনে উঁকি দিয়ে সরকারের সমালোচনা করছে : তথ্যমন্ত্রী

করোনাকালে বিএনপি জনগণের পাশে না গিয়ে টেলিভিশনে উঁকি দিয়ে সরকারের সমালোচনা করছে : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশের সময়: জুলাই ২৯, ২০২০, ৬:১০ অপরাহ্ণ

তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেছেন, অনেকে ঘরে বসে টেলিভিশনে উঁকি দিয়ে সরকারের সমালোচনা করেন। কিন্তু ঘর থেকে বের হন না। এই করোনাকালে একদিনও বসেছিলাম না। প্রতিদিন আমি কাজ করেছি। অনেকে কাজ করেছেন। আমরা জানি যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে যে কোনো সময় মৃত্যু হতে পারে। তাই বলে হাত গুটিয়ে বসে থাকার শিক্ষা আমাদের নেত্রী আমাদের দেননি। নেত্রীও বসে নেই। তিনি কাজ করছেন। আর বিএনপির নেতারা টেলিভিশনে উঁকি দিয়ে কথা বলছেন। জনগণের পাশে নেই।

আজ বুধবার দুপুরে যশোর সার্কিট হাউস মিলনায়তনে করোনাকালীন পরিস্থিতিতে খুলনা বিভাগের সাংবাদিকদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সফলভাবে নেতৃত্ব দেওয়ার কারণে বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যুর হার পৃথীবীতে সর্বনিম্ম যে কয়টি দেশ তার মধ্যে বাংলাদেশ রয়েছে। করোনা বাংলাদেশে ৫ মাস এসেছে তবে একটি মানুষও না খেয়ে মৃত্যুবরণ করেনি জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণে। কারো মধ্যে খাদ্যের জন্য কোনো হাহাকার নেই।

তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে সাংবাদিক ভাই-বোনরা সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে কাজ করছেন। পুলিশ বাহিনী উদাহরণ তৈরি করেছে। সেনা সদস্যরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। ডাক্তার-নার্সরাও তো আছেনই। এভাবে যারাই মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে আমি তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই। এই পরিস্থিতিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, যেভাবে বাংলাদেশে সাংবাদিকদের করোনাকালীন সহায়তা দেওয়া হচ্ছে আশে পাশের কোনো দেশে দেওয়া হচ্ছে না। ভারতেও দেওয়া হচ্ছে না। নেপালে দেওয়া হচ্ছে না, পাকিস্থানেও দেওয়া হচ্ছে না। এই সহায়তা আরো সাংবাদিকদের পর্যায়ক্রমে দেওয়া হবে। আপনারা জানেন সাংবাদিকদের আরো একটি গ্রুপ আছে। তারা সরকারের বিরুদ্ধে লেখে সরকারের বিরুদ্ধেই বলে। কিন্তু সরকার সবার জন্য যিনি সরকারকে সমালোচনা করেন তার জন্যও। সরকার সবার জন্য রাষ্ট্র সবার জন্য। সেটা মাথায় রেখেই তাদেরকে বলছি তারা যেন যোগাযোগ করেন। সরকারের পক্ষ থেকে যে সহায়তা করা হবে সেটি সবার জন্য করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মনে করেন সমালোচনা কাজ করার ক্ষেত্রে সহায়ক। অন্ধ সমালোচনা বা একপেশে সমালোচনা সহায়ক নয়। সমালোচনা ভুল-ত্রুটি সংশোধন করার ক্ষেত্রে সহায়ক। তাই যারা সমালোচনা করেন তাদের আমি বিনীতভাবে অনুরোধ জানাই আপনার অবশ্যই সমালোচনা করবেন কিন্তু অন্ধ এবং বধিরের মতো সমালোচনা করবেন না। সমালোচনা করুন। আমরা সমালোচনা সহ্য করার সংস্কৃতি লালন করি। প্রধানমন্ত্রী লালন করেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সেটা লালন করে।

বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের আয়োজনে ও যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সহযোগিতায় চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন যশোর-৬ আসনের সংসদ সদস্য শাহীন চাকলাদার, বিএফইউজে’র সভাপতি মোল্লা জালাল, মহাসচিব শাবান মাহমুদ, যশোর জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম, পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, প্রেস ক্লাব যশোর সভাপতি, জাহিদ হাসান টুকুন, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মুন্সি মোহম্মদ মাহবুব আলম, বিএফইউজের সহ সভাপতি মনোতোষ বসু, যুগ্ম মহাসচিব সাকিরুল কবীর রিটন, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মিলন রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাজেদ রহমান। অনুষ্ঠানে যশোরের ৪৮ জনসহ খুলনা বিভাগের নয় জেলার ৩৩৮ সাংবাদিকদের মধ্যে প্রতিজন দশ হাজার টাকা করে এ চেক বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

seventeen + seventeen =