Templates by BIGtheme NET
২৩ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ৬ জুন, ২০২০ ইং , ১৩ শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী
Home » আন্তর্জাতিক » করোনার ভ্যাকসিন তৈরিতে যে পাঁচ প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে রেখেছে ডব্লিউএইচও (ভিডিও)

করোনার ভ্যাকসিন তৈরিতে যে পাঁচ প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে রেখেছে ডব্লিউএইচও (ভিডিও)

প্রকাশের সময়: মে ১৮, ২০২০, ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

প্রাণঘাতি করোনার ভ্যাকসিন তৈরিতে কাজ করছে সারা বিশ্বের প্রায় শতাধিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান। তবে তাদের মধ্যে পাঁচটি প্রতিষ্ঠানকে সকলের চেয়ে এগিয়ে রেখেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

সম্প্রতি সংস্থাটির প্রধান টেড্রোস আধানম গেব্রেইয়েসুস ওই পাঁচ প্রতিষ্ঠানের নাম উল্লেখ করে বলেন, এদের মধ্যে যে কেউই করোনার ভ্যাকসিন আগে বাজারে আনতে পারে।

ওই পাঁচ প্রতিষ্ঠান ও তাদের ভ্যাকসিনের সর্বশেষ অবস্থার কথা জেনে নেয়া যাক :

প্রথমেই রয়েছে মার্কিন ওষুধ কোম্পানি মোদারনা থেরাপিউটিকস। জানা গেছে, এই প্রতিষ্ঠানটি ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত ক্লিনিকাল ট্রায়াল পরিচালনার জন্য ইউএস ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা এফডিএ‘র ছাড়পত্র পেয়েছে।

ইতোমধ্যে ওয়াশিংটনের সিয়াটলে ৪৫ জন সুস্বাস্থ্যের অধিকারী স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে এই ভ্যাকসিনটি পরীক্ষা করা হয়েছে। যার ফল অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক ছিলো। এবার দ্বিতীয় ধাপে আরো ৬০০ স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে এটি পরীক্ষা করা হবে।

দ্বিতীয় অবস্থানেও এগিয়ে রয়েছে মার্কিন প্রতিষ্ঠান নোভাভ্যাক্স ইনক। প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি ভ্যাকসিন তৈরির জন্য ৩৮৮ মিলিয়ন ডলারের অর্থ সাহায্য পেয়েছে।

জানা গেছে, তাদের তৈরি ভ্যাকসিন এনভিএক্স-কোভ২৩৭৩ আশাব্যঞ্জক ফলাফল দেখিয়েছে। এরই মধ্যে সার্স কোভিড-২ ভাইরাসের জিন থেকে সিঙ্গল এবং ডবল ডোজের এই ভ্যাকসিন ইঁদুরের ওপর পরীক্ষায় দুর্দান্ত ফল পাওয়া গেছে বলেও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বেইজিংভিত্তিক প্রতিষ্ঠান সিনোভ্যাক বায়োটেক। প্রাথমিকভাবে বানরের শরীরে সফলভাবে কাজ করেছে চীনা এই প্রতিষ্ঠানটির তৈরি ভ্যাকসিনটি। গবেষণা কালে দেখা গেছে, যেসব করোনা পজেটিভ বানরকে এই ওষুধ দেয়া হয়েছিলে তাদের সবাই আশ্চর্যজনকভাবে ভালো হয়ে যায়। এবং তাদের ফুসফুসের সমস্যাও ভালো হয়ে যায়। এখন দ্বিতীয় পর্বের পরীক্ষার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানায় সিনোভ্যাক।

চতুর্থ অবস্থানে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়কে রেখেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। জানা গেছে, প্রাণঘাতী এ ভাইরাস প্রতিরোধে অ্যাস্ট্রাজেনেকার সঙ্গে যৌথভাবে ভ্যাকসিন তৈরি করেছে যুক্তরাজ্যে খ্যাতনামা অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়।

ইতিমধ্যে তাদের তৈরি ভ্যাকসিনটি বানরের ওপর প্রয়োগ করে সফলতা পাওয়া গেছে। মানুষের ওপরও ট্রায়াল দেয়া হয়েছে।

সর্বশেষ এগিয়ে রয়েছে ফরাসি প্রতিষ্ঠান সানোফি। তারা সম্প্রতি জানিয়েছে, ভ্যাকসিন তৈরিতে অনেকটাই এগিয়ে গেছে। ইতোমধ্যে ইঁদুরের উপর পরীক্ষা চালিয়ে প্রথম ধাপের পরীক্ষা সাফল্যের সাথে শেষ করেছে তারা। চলছে দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা। শীঘ্রই এর ভ্যাকসিন বাজারে পাওয়া যাবে বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

two × one =