Templates by BIGtheme NET
১২ ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং , ২৯ জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিজ্ঞান- প্রযুক্তি » নেই সেন্সর নেই স্ট্যান্ডার্ড
যাচ্ছে তাই ভিডিও বানাচ্ছেন ইউটিউবাররা

নেই সেন্সর নেই স্ট্যান্ডার্ড
যাচ্ছে তাই ভিডিও বানাচ্ছেন ইউটিউবাররা

প্রকাশের সময়: জানুয়ারি ১৬, ২০২০, ৩:৪৯ অপরাহ্ণ

ইউটিউব চ্যানেলের ব্যবসাকে রমরমা করে তুলতে এক শ্রেণীর ইউটিউবার নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চোখ বুলালেই দেখা যায়, স্বল্পদৈর্ঘ্য এসব ভিডিওর নানা ভঙ্গিমার বিজ্ঞাপন।

তবে, প্রশ্ন হচ্ছে নির্মাতাদের নজর স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের দিকেই কেন ?

একজন ইউটিউবার বলেন, এই দেশে চলচ্চিত্রের ক্ষেত্রে সেন্সর বোর্ড আছে। তবে ইউটিউবে এসবের বালাই নেই। এখানে মত প্রকাশের ক্ষেত্রে কোনো স্ট্যান্ডার্ড মেইনটেন্ট করা হয় না।কেউ চাইলেই নিজের ইচ্ছেমত ভিডিও বানাতে পারেন।

সেখানে চলচ্চিত্র, রাজনীতি ও ধর্মীয় বিষয় নিয়ে তাদের ব্যক্তিগত চিন্তাচেতনার প্রতিফলন ঘটান।

অনেক ক্ষেত্রে যৌন সুড়সুড়ির মাধ্যমে ভিউয়ার্স বাড়ানো হয়। এর ফলে জাতীয়, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় বিষয়গুলো নিয়ে রেষারেষি এবং অস্থিরতা সৃষ্টি হয়।

এই অস্থিরতাগুলোকে পুঁজি করেই ইউটিউবাররা বক্তব্য পাল্টা বক্তব্য দিয়ে ভিউয়ার বাড়িয়ে থাকেন।

একজন ভিউয়ার বললেন, বিজ্ঞাপনের আধিক্যের কারণে এখন টেলিভিশনে চোখ রাখা যায় না। আর এই জায়গাটি দখল করছে ইউটিউবাররা।

এখানে বিনিয়োগটা দীর্ঘ মেয়াদি হলেও ফেরত পাওয়া যায়, অন্তত লোকসান দিতে হয় না বলেও জানান তারা।

টিভির দর্শকরা এখন এমবি খরচ করে ইউটিউবে যেমন খুশি প্রোগ্রাম দেখেন।

এ বিষয়ে একটি নীতিমালা প্রণয়ন করলে এর থেকে উত্তরণ ঘটবে বলে মনে করেন অনেক ইউটিউবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

four − one =