Templates by BIGtheme NET
২৯ শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৩ আগস্ট, ২০২০ ইং , ২২ জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিজ্ঞান- প্রযুক্তি » সহিংস ভিডিওর বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে ইউটিউব

সহিংস ভিডিওর বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে ইউটিউব

প্রকাশের সময়: ডিসেম্বর ৩, ২০১৯, ১০:৫২ অপরাহ্ণ

১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি, বাংলা ভাষার জন্য পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে প্রাণ হারালেন দেশের চার তরতাজা যুবক। মায়ের ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিই ছিল তাদের অপরাধ! সেই মহান ও গুরুত্ববহ আন্দোলনের কারণেই ২১ ফেব্রুয়ারি এখন জাতিসংঘের ঘোষিত ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’। এবার সেই বাংলা ভাষাকেই দ্বিতীয় সরকারি ভাষা করলো লন্ডন। ইংরেজি ভাষার পরে লন্ডনে দ্বিতীয় সরকারিভাবে ভাষা হিসেবে স্থান করে নিয়েছে ‘বাংলা’ ভাষা।

সম্প্রতি লন্ডনের সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য এবং বাসিন্দাদের মধ্যে যোগাযোগ বাড়াতে একটি সমীক্ষা চালায় সেখানকার একটি সংস্থা। যেখানে উঠে আসে লন্ডনে জনসংখ্যার দিক দিয়ে বাংলাভাষী মানুষের সংখ্যা দ্বিতীয়। এরপরই রয়েছে পোলিশ ও তুর্কি ভাষা। লন্ডনের প্রায় ২ লক্ষ বাসিন্দা এই তিনটি ভাষায় কথা বলেন।

সমীক্ষায় দেখা যায়, লন্ডনে বসবাসকারীদের মধ্যে প্রায় ৭২ হাজার মানুষই বাংলায় কথা বলেন। যা ইংরেজির ঠিক পরেই। এছাড়া লন্ডনের প্রায় ৩ লক্ষ বাসিন্দা বাড়িতে কোনও না কোনও বিদেশি ভাষায় কথা বলেন। তবে বাংলাভাষীদের সংখ্যা বাড়লেও ব্রিটিশদের মধ্যে মাত্র তিন শতাংশ মানুষ স্বচ্ছন্দে বাংলা বলতে পারেন বলেও জানিয়েছে সমীক্ষাটি।

বাংলাদেশ ছাড়াও একমাত্র দেশ হিসেবে ‘বাংলা’কে রাষ্ট্রীয়ভাষার স্বীকৃতি দিয়েছে আফ্রিকার দেশ সিয়েরা লিওনে। দেশটি ২০০২ সালে নিজেদের রাষ্ট্রীয় ভাষা হিসেবে বাংলাকে স্বীকৃতি দেয়। এছাড়া ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, আসামের বরাক উপত্যকার সরকারি ভাষা ও বঙ্গোপসাগরে অবস্থিত আন্দামান দ্বীপপুঞ্জের প্রধান কথ্য ভাষা বাংলা।

ভারতের ঝাড়খণ্ড, বিহার, মেঘালয়, মিজোরাম, উড়িষ্যা রাজ্যগুলোতে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বাংলাভাষী জনগণ রয়েছে। ভারতে হিন্দির পরেই সর্বাধিক প্রচলিত ভাষা এখন বাংলা। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্য, আমেরিকা ও ইউরোপে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বাংলাভাষী অভিবাসী রয়েছে। সব মিলিয়ে সারা বিশ্বে বর্তমানে ২৬ কোটির অধিক মানুষ দৈনন্দিন জীবনে বাংলা ব্যবহার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

three × 5 =