Templates by BIGtheme NET
২৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৩ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
Home » জাতীয় » সৎ ভাবে যে থাকবে সে সম্মান পাবে নইলে নয় : প্রধানমন্ত্রী

সৎ ভাবে যে থাকবে সে সম্মান পাবে নইলে নয় : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময়: নভেম্বর ৩০, ২০১৯, ৪:০৯ অপরাহ্ণ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুবিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলার সকল জনগণকে ঐক্যবদ্ধের মাধ্যমে এই দেশ স্বাধীন হয়েছিল।  ওই সময় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল বাংলার জনগণের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দেয়া। কিন্তু তা না হওয়ায় এখন আওয়ামী লীগের একমাত্র উদ্দেশ্য বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করা। আর তার স্বপ্ন বাস্তবায়ন হলেই জনগণের ভাগ্য পরিবর্তন হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (৩০ নভেম্বর) ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ শাখা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

এ সময় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল জনগণের জীবনমান উন্নত করা, তাদের একটা উন্নত জীবন দেয়া। তিনি নিজের দিকে তাকান নাই। নিজে কি পাবেন সে চিন্তা করেন নাই। বঙ্গবন্ধু মন্ত্রীত্বের পদ ছেড়ে দিয়ে দলের সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়েছিলেন শুধু দলকে সুসংগঠিত করবার জন্য। কাজেই তার আদর্শের সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। আর এই সংগঠনের প্রতিটি নেতা-কর্মীকে সেই আদর্শ বুকে ধারণ করে জনগণের সেবাই নিজেকে বিলিয়ে দিতে হবে।

আজকে আমরা সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত রেখেছি। এগুলো অব্যাহত থাকবে। কারণ জনগণের কষ্টার্জিত অর্থ জনগণের কল্যাণেই ব্যায় হবে। কারও ভোগ বিলাসের জন্য নয়।

সম্প্রতি আওয়ামী লীগের শুদ্ধি অভিযানে দলটির বিভিন্ন নেতা-কর্মীদের অবৈধ অর্থ উপার্জনের অভিযোগ উঠেছে। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, টাকা মানুষের একটা মানসিক রোগ। কারণ এটা যে একবার বানাতে থাকে তার শুধু টাকা বানাতেই ইচ্ছা করে। তবে এতে পরিবারের শান্তি নষ্ট হয় বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, আমরা এই ধরনের পরিস্থিতি চাই না। আমরা চাই সৎভাবে যে থাকবে সে সম্মান পাবে না হলে নয়। উদাহরণ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, দুর্নীতির মাধ্যমে টাকা উপার্জন করে বিলাসিতা করলে মানুষ সামনে থেকে কিছু না বললেও পেছনে অনেক খারাপ কথা বলে। কাজেই দুর্নীতি থেকে সবাইকে বিরত থাকতে হবে। আর এটা সবাইকেই মনে রেখেই কাজ করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

eight − 5 =