Templates by BIGtheme NET
২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিবিধ » যে কারণে অস্ত্রোপচারের সময় সবুজ অ্যাপ্রোন পড়েন সার্জনরা

যে কারণে অস্ত্রোপচারের সময় সবুজ অ্যাপ্রোন পড়েন সার্জনরা

প্রকাশের সময়: নভেম্বর ২৯, ২০১৯, ৯:৩৩ অপরাহ্ণ

চিকিৎকরা সাধারণত সাদা অ্যাপ্রোন পরে থাকেন। পরিচ্ছন্নতার প্রতীক হিসেবে সাদা রঙকে বিবেচনা করা হয়। এজন্যই ঐতিহ্যগতভাবে এই রঙের পোশাক পড়েন চিকিৎসকরা।

টুডে’জ সার্জিক্যাল নার্সের ১৯৯৮ সালের একটি নিবন্ধনের তথ্যানুসারে, বিংশ শতাব্দীতে এসে একজন প্রভাবশালী বিখ্যাত চিকিৎসক অস্ত্রোপচার রুমে সবুজ রঙের অ্যাপ্রোন পড়তে শুরু করেন, কারণ তিনি ভেবেছিলেন সার্জনদের চোখের জন্য এই রঙ সহায়ক হবে।

ওই চিকিৎসকের কারণেই সবুজ বা নীল রঙের অ্যাপ্রোনের জনপ্রিয়তা শুরু হয়েছিল কিনা তা নিশ্চিত হওয়া কঠিন। তবে সবুজ বা নীল রঙের অ্যাপ্রোন আসলেই অস্ত্রোপচার টেবিলে চিকিৎসকদের আরো ভালোভাবে দৃষ্টিপাতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। কারণ এটি লাল রঙের বিপরীতে অবস্থান করে।

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার সাইকোলজিস্ট জন ওয়ার্নার বলেন, সবুজ রঙ মূলত দুটি উপায়ে সার্জনদের দৃষ্টিকে সহায়তা করে থাকতে পারে।

প্রথমত, সবুজ বা নীল রঙের দিকে তাকানোর পরে লাল রঙ (রক্তের রঙ লাল, আর অপারেশন থিয়েটার মানেই রক্ত) দেখা চোখের জন্য সহজ হয়। ক্রমাগত একই রঙের দিকে তাকিয়ে থাকার ফলে নির্দিষ্ট সময় পরে মানুষের চোখ সেই রঙকে ঘোলাটে আকারে দেখতে শুরু করে। কিন্তু মাঝে মাঝে সবুজ বা নীল রঙের দিকে তাকালে তা পরবর্তীতে লাল রঙে চোখের ঘোলাদৃষ্টি দূর করতে সহায়ক হয়।

দ্বিতীয়ত, দীর্ঘক্ষণ ধরে লাল বা গোলাপী কিছুর দিকে গভীর দৃষ্টিপাতের পরে সাদা রঙের দিকে তাকালে দৃষ্টিভ্রম হয়। অস্ত্রোপচার রুমে উজ্জ্বল ফ্লাশলাইট থাকে, যা সাদা রঙের অ্যাপ্রোনের ওপর পড়ে চোখে প্রতিফলিত হতে পারে। চোখে ক্যামেরার ফ্ল্যাশ পড়লে যেমন দৃষ্টিভ্রম হয় সে সময় এমন পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।
অস্ত্রোপচারের সময় সবুজ কিংবা নীল রঙের দিকে সার্জন মাঝে মধ্যে তাকালে এ ধরনের দৃষ্টিভ্রম ঘটে না। ফলে আরো সূক্ষ্মভাবে অস্ত্রোপচার করা সহজ হয়। এ কারণেই সবুজ বা নীল রঙের অ্যাপ্রোন অস্ত্রোপচার রুমে চিকিৎসকদের জন্য বিশেষ উপযোগী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

14 − 6 =