Templates by BIGtheme NET
২৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ১২ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
Home » জাতীয় » ‘১৭ নভেম্বর’ বাংলাকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার স্বীকৃতির দিন

‘১৭ নভেম্বর’ বাংলাকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার স্বীকৃতির দিন

প্রকাশের সময়: নভেম্বর ১৭, ২০১৯, ৩:৪৭ অপরাহ্ণ

১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি। মায়ের ভাষাকে রক্ষার জন্য রাজপথে আন্দোলন হয়। পাকিস্তানি সরকারি বাহিনীর গুলিতে প্রাণদান করে বাংলা মায়ের দামাল ছেলেরা। সালাম-বরকত-রফিক-শফিক-জব্বার আরও কত নাম না জানা সেসব শহীদের আত্মত্যাগে বাঙালিরা ফিরে পায় প্রাণের ভাষা বাংলা।

১৯৯৯ সালের এই দিনে জাতিসংঘ শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা- ইউনেস্কো ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। জাতিসংঘের এ স্বীকৃতির ফলে একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে সারা বিশ্বে পালিত হয়।

বাংলা ভাষার জন্য এক দারুণ দিন ১৭ নভেম্বর। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে ইউনেসকোর ৩০তম অধিবেশনে একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণার প্রস্তাব পাস হয়। ফলে পৃথিবীর সব ভাষাভাষীর কাছে একটি উল্লেখযোগ্য দিন হিসেবে একুশে ফেব্রুয়ারি স্বীকৃতি পায়। বিশ্ব দরবারে বাংলা ভাষা লাভ করে বিশেষ মর্যাদা।

ইউনেসকোর ঐতিহাসিক সেই অধিবেশনে একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালনের মূল প্রস্তাবক ছিল বাংলাদেশ ও সৌদি আরব। আর সমর্থন করেছিল আইভরি কোস্ট, ইতালি, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, কমোরোস, ডমিনিকান রিপাবলিক, পাকিস্তান, ওমান, পাপুয়া নিউগিনি, ফিলিপাইন, বাহামাস, বেনিন, বেলারুশ, গাম্বিয়া, ভারত, ভানুয়াতু, মাইক্রোনেসিয়া, রুশ ফেডারেশন, লিথুয়ানিয়া, মিসর, শ্রীলঙ্কা, সিরিয়া ও হন্ডুরাস।

একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের মর্যাদা লাভ শুধু বাংলা ভাষার বিশ্ববিজয় নয়; পৃথিবীর সব মাতৃভাষার বিজয়। পরের বছর ২০০০ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি থেকে পৃথিবীর ১৮৮টি দেশে এ দিনটি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালন শুরু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

4 × one =