Templates by BIGtheme NET
২ পৌষ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
Home » জাতীয় » সরকারের অনুমতি নেই
রোহিঙ্গাদের সাংবাদিকতা শেখাচ্ছে আমেরিকান এনজিও!

সরকারের অনুমতি নেই
রোহিঙ্গাদের সাংবাদিকতা শেখাচ্ছে আমেরিকান এনজিও!

প্রকাশের সময়: নভেম্বর ৮, ২০১৯, ৩:৫২ অপরাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদ: রোহিঙ্গা শিবিরের অভ্যন্তরীণ তথ্য মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বব্যাপী, এটা কী করে সম্ভব? ভেতরের খবর বাইরে প্রকাশ করে ফেলার এই অনুসন্ধানে নেমেই খোঁজ মিলল একদল রোহিঙ্গা তরুণ-তরুণীর। তারা শিখছে খবর লেখার কলাকৌশল, আত্মস্থ করছে ছবি তোলার বিভিন্ন কৌশল। শিখছে টেলিভিশন, সংবাদপত্র ও রেডিওতে সংবাদ উপস্থাপনার কায়দাকানুন।

জানা গেছে, তাদের এসবের পেছনে রয়েছে আমেরিকান এনজিও ইন্টারনিউজ। সরকারের অনুমতির তোয়াক্কা না করে এ কাজ অব্যাহত রেখেছে তারা। পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন, বার বার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ব্যর্থ হওয়ার নেপথ্যেও এদের বড় ভূমিকা রয়েছে।

সাংবাদিকতার বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ পাওয়া রোহিঙ্গাদের কয়েকজন বলছেন, আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ভেতরের খবর সাংবাদিকরা বেশিরভাগ সময়ই জানতে পারেন না। জানলেও সবকিছু প্রকাশ হয় না। এর বিকল্প হিসেবে এখন তারা নিজেরাই সংবাদ প্রচার করেন। প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ করেন। এসব তথ্যচিত্র ও সংবাদ ইউটিউব এবং ফেসবুকে শেয়ারের পাশাপাশি পাঠিয়ে দেন বিদেশি কিছু গণমাধ্যমে। তারা এটিকে ‘নিজেদের অধিকার, বিশ্বকে জানানোর প্রধান কৌশল’ বলে মনে করছেন।

বালুখালী রোহিঙ্গা শিবিরের ৩ নম্বর ক্যাম্পে গত ১২ অক্টোবর সরেজমিনে দেখা যায়, একটি তাঁবুর নিচে জটলা লেগেছে। একদল রোহিঙ্গা নারী-পুরুষের সঙ্গে কথা বলছে দুই রোহিঙ্গা কিশোর-কিশোরী ইয়াকুব ও শেকাফা। মূলত সাক্ষাৎকার নিচ্ছে তারা। একটি রেডিওর জন্য অনুষ্ঠান নির্মাণ করা হচ্ছে- এই সাক্ষাৎকার তারই অংশ। ক্যাম্পের হালচাল, রোহিঙ্গাদের জীবনযাপনের চিত্র ও অভাব-অভিযোগই এ অনুষ্ঠানের বিষয়।

ইয়াকুব ও শেকাফা জানায়, ইন্টারনিউজের সাহায্যে কীভাবে সংবাদ লিখতে হয়, কীভাবে রেডিওতে উপস্থাপনা করতে হয় এবং কীভাবে ছবি তুলতে হয়, এসব বিষয়ে বিস্তারিত প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় তাদের। তারা জানায়, তাদের মতো অসংখ্য লেখাপড়া জানা রোহিঙ্গা তরুণ-তরুণীরা সাংবাদিকতা শিখছেন।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনের অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ শামসুদ্দৌজা বলেন, ‘কোনোভাবেই রোহিঙ্গাদের মধ্যে এ ধরনের কর্মশালা দেওয়ার বিধান নেই। তাদের এ ধরনের কাজে প্রশিক্ষিত করার পেছনে নেতিবাচক কোনো উদ্দেশ্য থাকতে পারে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, ইন্টারনিউজের প্রধান কার্যালয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আর্কাটায়। বাংলাদেশে সংস্থাটির কান্ট্রি ডিরেক্টর মাঈন উদ্দিন আহমেদ। একসময় তিনি রোহিঙ্গাদের নিয়ে অপতৎপরতার অভিযোগে বাংলাদেশে নিষিদ্ধ বিদেশি সংস্থা মুসলিম এইডের দায়িত্ব পালন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

5 × five =