Templates by BIGtheme NET
২৯ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৫ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী
Home » জাতীয় » যেভাবে আইএসের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে দেশীয় জঙ্গিরা!

যেভাবে আইএসের দৃষ্টি আকর্ষণ করছে দেশীয় জঙ্গিরা!

প্রকাশের সময়: নভেম্বর ৮, ২০১৯, ৩:৩৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদ: সম্প্রতি মার্কিন বাহিনীর বিশেষ অভিযানে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রতিষ্ঠাতা ও আমির আবু বকর আল বাগদাদি নিহত হওয়ার খবর প্রকাশিত হয় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোতে। পরবর্তী সময় সংগঠনটির নতুন আমির হিসেবে আবু ইব্রাহিম আল-হাশেমি আল-কুরাইশির নাম ঘোষণা করে আইএস। মূলত এর পরই আইএসের নতুন নেতৃত্বের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে কালো পতাকার সঙ্গে ছবি তুলে পাঠায় বাংলাদেশের জঙ্গিগোষ্ঠী নব্য জেএমবির একটি গ্রুপ। আইএস এই ছবি প্রকাশ করে নিজেদের মুখপত্র হিসেবে পরিচিত আমাক নিউজ এজেন্সিতে। আমাকের বরাদ দিয়ে ওই ছবির বিষয়ে আবার জানায় জঙ্গি কার্যক্রম পর্যবেক্ষণকারী মার্কিন সংস্থা সাইট ইন্টেলিজেন্স।

বিষয়টি নিয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট এবং র‌্যাব কর্মকর্তারা বলছেন, এসব ছবি তুলে জঙ্গিরা আইএসের প্রতি তাদের কথিত আনুগত্য দেখাতে চাইছে। বাগদাদির মৃত্যুর পর নতুন আমিরের দৃষ্টি আকর্ষণে এসব ছবি তোলা হয়। তবে ছবি বিশ্লেষণ করে এই জঙ্গিদের আইনের আওতায় আনতে কাজ করছে সিটিটিসি ও র‌্যাব।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, নব্য জেএমবির একটি গ্রুপ বাংলাদেশের কোনো একটি জঙ্গলে এসব ছবি তোলে। তারা নব্য জেএমবির আরতুগুল গ্রুপের সদস্য। ছবিতে আট তরুণকে আইএসের পতাকার সঙ্গে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এখন ছবিটি নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ করছেন সিটিটিসি ও র‌্যাব কর্মকর্তারা। ছবিটি কোন বনে তোলা হয়েছে সেটিও শনাক্তে গাছপালাসহ অন্য আলামত মিলিয়ে দেখা হচ্ছে। এই তৎপরতার মধ্যেই ৪ নভেম্বর রাজধানীর রমনায় অভিযান চালিয়ে জেএমবির চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করে সিটিটিসি। বর্তমানে গ্রেপ্তারকৃত আরিফ মোল্লা, ইলিয়াস হোসেন ওরফে মিঠু, ফরহাদ আলী ওরফে ফুয়াদ ও মুনতাসিম বিল্লাহ ওরফে সাব্বিরকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সিটিটিসি সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের মাঝামাঝিতে বগুড়ার দুপচাঁচিয়া থানার সঞ্জয়পুর গ্রামের নাগর নদীর তীরে রাকিবুল হাসানের নেতৃত্বে আইএসের মিডিয়ায় প্রচারের জন্য ভিডিও ধারণ করে নব্য জেএমবি। পরবর্তী সময় নরসিংদীতে সিটিটিসি কর্তৃক ‘অপারেশন গর্ডিয়ান নট’ পরিচালনার পর রাকিবুল গ্রেপ্তার হলে জঙ্গিরা আত্মগোপনে চলে যায়। সাম্প্রতিক সময়ে এই গ্রুপের সদস্যরাই আবার ছবি তুলে আইএসের কথিত প্রকাশনা ‘আমাকে’ পাঠায়। এর পর তাদের দেখাদেখি আইএসের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে একই ধরনের ছবি তোলার জন্য জড়ো হওয়ার চেষ্টা করলে ৪ নভেম্বর গ্রেপ্তার করা হয় ওই চার জঙ্গিকে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছে ঢাকার কোনো গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বসে ছবি তুলে সেগুলো আইএসের প্রকাশনায় পাঠাতে চেয়েছিল তারা। কিন্তু তার আগেই গ্রেপ্তার হওয়ায় পরিকল্পনা ভেস্তে যায়। তবে এ গ্রুপের আরও কয়েক জঙ্গি পলাতক রয়েছে।

নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা বলছেন, অতীতের চেয়ে বাংলাদেশ এখন খুব শান্ত একটি দেশ হিসেবে বর্হিবিশ্বে পরিচিতি লাভ করেছে। বর্তমান সরকার কঠোর হাতে জঙ্গি সংগঠনগুলো দমন করছে। সম্প্রতি আমেরিকা জঙ্গি দমন করায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেছেন। যা দেশ বিদেশের গণমাধ্যমগুলোতে প্রচারিত হয়েছে। সুতরাং বলা যায় আইএস কিংবা অন্য কোনো জঙ্গি সংগঠন বাংলাদেশে অবস্থান করে তৎপর হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

5 × one =