Templates by BIGtheme NET
২৯ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৫ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিনোদন » ব্যক্তিগত গোপনীয়তা ফাঁস অগ্রহণযোগ্য

ব্যক্তিগত গোপনীয়তা ফাঁস অগ্রহণযোগ্য

প্রকাশের সময়: নভেম্বর ৭, ২০১৯, ৪:০২ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশে বিনোদন জগতের তারকাদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে ইন্টারনেট-ভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম প্রায়ই সরগরম হয়ে উঠে। তারকাদের একান্ত ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি কিংবা ভিডিও ফেসবুক এবং ইউটিউবে ছড়িয়ে যায়।

যেমনটা হয়েছে সুপরিচিত অভিনয়শিল্পী রাফিয়াত রশিদ মিথিলার ক্ষেত্রে। ইফতেখার আহমেদ ফাহমি নামের এক নাট্য পরিচালকের সাথে তার কিছু কথিত ছবি গত কয়েকদিন ধরেই ফেসবুকে ছড়িয়েছে এবং সেগুলো নিয়ে বিস্তর আলোচনা হচ্ছে।

বিষয়টি আমলে নিয়ে অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা সাইবার ক্রাইম ইউনিটে একটি অভিযোগও দায়ের করেছেন। তার দুটি স্নাতক ডিগ্রি রয়েছে – একটি রাষ্ট্রবিজ্ঞানে এবং অন্যটি মাধ্যমিক শিক্ষায়। তার দুটি মাস্টার রয়েছে – একটি রাষ্ট্রবিজ্ঞানে এবং অন্যটি শৈশব বিকাশের।

তিনি একজন মডেল, গায়ক, অভিনেত্রী, গীতিকার এবং রেডিও অ্যাঙ্কর হিসাবেও সুপরিচিত। পাঠ্যক্রম বিকাশে তিনি ডিপ্লোমা অর্জন করেছেন, শাস্ত্রীয় নৃত্যের আনুষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ নিয়েছেন এবং শিশু বিকাশের দুইটি বই লিখেছেন। তিনি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি এবং ব্র্যাক ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষকতা করেছেন। তার যে বহুমুখি প্রতীভা রয়েছে সম্ভবত আর কিছু বিশদভাবে বলার প্রয়োজন নেই।

মিথিলা নিজের গুণে প্রতিষ্ঠিত একজন দক্ষ শিক্ষক। ব্যক্তিগত গোপন বিষয় ফাঁস হওয়ার কারণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি ভাইরাল হয়ে শিরোনামে এসেছেন। কঠোর সাইবার আইন থাকা সত্ত্বেও মিথিলার বিভিন্ন ছবি ও ভিডিও ক্লিপ ফেসবুক গ্রুপগুলো ছড়িয়ে পড়ে যা সাইবার অপরাধ।

মিথিলার ইমেল ও তার বন্ধুর ফেসবুক আইডি হ্যাক করে ছবি ও ভিডিও ক্লিপ দায়িত্বজ্ঞানহীনভাবে সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। এমনকি মূলধারার কিছু সংবাদমাধ্যম খবর প্রকাশ করেছে। এমনকি বিষয়টি নিয়ে অভিনেত্রী মিথিলার কাছে প্রতিক্রিয়াও জানতে চেয়েছে।

তিনি ১১ বছরের অভিজ্ঞ একজন পেশাদারী শিক্ষক। তিনি ছয় বছরের এক কন্যা সন্তানের মা। দুজনের সম্মতি থাকা ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলো যে সকল ব্যক্তি ও মিডিয়াগুলো ফাঁস করেছে তাদের তদন্ত করে শাস্তি হওয়া জরুরী।

নিশ্চয়ই তার ব্যক্তিগত বিষয়ের কারণে ব্র্যাক কর্তৃপক্ষ তাকে কর্মস্থলে প্রশ্নের সম্মখীণ করবেন না। ব্যক্তিগত বিষয় ফাঁস করা এমন সাইবার আগ্রাসন অগ্রহণযোগ্য। তার ব্যক্তিগত বিষয় ফাঁসকারীদের শাস্তি দেওয়া উচিৎ। সাইবার-কর্তৃপক্ষকে এই বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

রাফিয়াথ রশীদ মিথিলার মতো অবশ্যই অন্য সবার নিজের পছন্দ মতো জীবনযাপনের অধিকার রয়েছে। যদি না সেটা কোনও অপরাধ হয়। কার সাথে সে বন্ধুত্ব করবে, কার সাথে বাইরে যাবে, কাকে বিয়ে করবে, সকালে কী খায় বা চুলে কী ব্যবহার করবে তা একান্তই ব্যক্তিগত বিষয় যা অন্য কারও নাক গলানো উচিৎ নয়।

লেখক: তানিম আহমেদ, ঢাকা ট্রিবিউন অবলম্বনে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

one × two =