Templates by BIGtheme NET
২৯ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৫ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী
Home » অর্থনীতি » সেরা ১৪১ করদাতাকে ‘ট্যাক্সকার্ড’ সম্মাননা দেবে সরকার

সেরা ১৪১ করদাতাকে ‘ট্যাক্সকার্ড’ সম্মাননা দেবে সরকার

প্রকাশের সময়: নভেম্বর ৭, ২০১৯, ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ

যোগ্য করদাতাদের চলতি মাসেই আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মাননা দেবে সরকার। সেরা করদাতা হিসেবে ১৪১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ট্যাক্সকার্ড দেবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এনবিআর। এদের মধ্যে ব্যক্তি রয়েছেন ৭৪ জন, বাকিগুলো প্রতিষ্ঠান।

৫ নভেম্বর গেজেট প্রকাশ করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ। ব্যক্তি পর্যায়ে ট্যাক্সকার্ড দিতে ‘বিশেষ শ্রেণি’ এবং ‘আয়ের উৎস বা পেশা’ নামের দুটি শ্রেণি করা হয়েছে। বিশেষ শ্রেণির মধ্যে রয়েছে-

সিনিয়র সিটিজেন:

এ শ্রেণিতে ট্যাক্সকার্ড পাবেন স্যামুয়েল এস চৌধুরী, তপন চৌধুরী ও রাজশাহীর অনিতা চৌধুরী এবং গোলাম দস্তগীর গাজী ও খন্দকার বদরুল হাসান। তাঁদের মধ্যে সাংসদ গোলাম দস্তগীর গাজী বৃহৎ করদাতা ইউনিটের (এলটিইউ) করদাতা। স্যামুয়েল এস চৌধুরী ও অনিতা চৌধুরী রাজশাহী কর অঞ্চল এবং খন্দকার বদরুল হাসান ঢাকা কর অঞ্চল ৩-এর করদাতা।

গেজেটভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা:

এ শ্রেণিতে ট্যাক্সকার্ড পাবেন ঢাকার চারটি কর অঞ্চলের লে. জেনারেল আবু সালেহ মো. নাসিম (অব.), মো. নাসির উদ্দিন মৃধা, এস এম আবদুল ওয়াহাব, মো. ইদ্রিস আলী মিয়া এবং মো. আতাউর রউফ।

নারী:

এ শ্রেণিতে ঢাকার কর অঞ্চল–৩-এর রুবাইয়াত ফারজানা হোসেন, কর অঞ্চল–৬-এর মাহমুদা আলী শিকদার ও কর অঞ্চল–৯-এর পারভীন হাসান এবং রাজশাহী কর অঞ্চলের রত্না পাত্র ও রংপুর কর অঞ্চলের নিশাত ফারজানা চৌধুরী ট্যাক্সকার্ড পাবেন।

তরুণ:

এ শ্রেণিতে রয়েছেন এলটিইউর করদাতা নাফিস সিকদার, ঢাকার কর অঞ্চল–৪-এর গাজী গোলাম মতুর্জা, কর অঞ্চল–৩-এর মো. হাসান, কর অঞ্চল–১০–এর জুলফিকার হোসেন মাসুদ রানা এবং চট্টগ্রাম কর অঞ্চল–৪-এর মো. আমজাদ খান।

প্রতিবন্ধী:

এ শ্রেণিতে ঢাকার কেউ পাননি। পাচ্ছেন চট্টগ্রামের সুকর্ণ ঘোষ, সিলেটের মো. মামুনুর রশিদ ও খুলনার কাজী আখতার হোসেন।

আয়ের উৎস বা পেশার মধ্যে রয়েছে ১৩টি শ্রেণি। এগুলো হলো-

ব্যবসায়ী:

এ শ্রেণিতে রয়েছেন ঢাকার কর অঞ্চল–২-এর মো. কাউছ মিয়া, কর অঞ্চল–১২-এর আব্দুল কাদির মোল্লা, কর অঞ্চল–১৫-এর কামরুল আশরাফ খান, এলটিইউর সৈয়দ আবুল হোসেন এবং কর অঞ্চল–১০-এর মো. নুরুজ্জামান খান।

বেতনভোগী:

কর অঞ্চল–৩ ও ৮-এর এ শ্রেণির পাঁচজনের ঠিকানা একই। তাঁরা হলেন লায়লা হোসেন, মোহাম্মদ ইউসুফ, হোসনে আরা হোসেন, খাজা তাজমহল এবং এম এ হায়দার হোসেন।

চিকিৎসক:

এ শ্রেণির সেরা পাঁচ করদাতাই কর অঞ্চল–১০-এর। তাঁরা হলেন এ কে এম ফজলুল হক, প্রাণ গোপাল দত্ত, জাহাঙ্গীর কবির, এন এ এম মোমেনুজ্জামান ও মো. নুরুল ইসলাম।

আইনজীবী:

এ শ্রেণির সবাই কর অঞ্চল–৮-এর। তালিকায় রয়েছেন মাহবুবে আলম, শেখ ফজলে নূর তাপস, আহসানুল করিম, কাজী মুহাম্মদ তানজীবুল আলম ও নিহাদ কবির।

খেলোয়াড়:

এ শ্রেণিতে রয়েছেন তিন ক্রিকেটার। কর অঞ্চল–৭-এর সাকিব আল হাসান এবং কর অঞ্চল–১-এর তামিম ইকবাল ও মাশরাফি বিন মুর্তজা।

অভিনেতা/অভিনেত্রী:

এ শ্রেণিতে রয়েছেন সাকিব খান রানা, মাহফুজ আহমেদ, এম এ জলিল অনন্ত এবং এস এ আবুল হায়াত।

শিল্পী:

এ শ্রেণিতে রয়েছেন রুনা লায়লা, তাহসান রহমান খান ও এস ডি রুবেল।

স্থপতি:

এ শ্রেণিতে তিনজন পাবেন ট্যাক্সকার্ড। তাঁরা হলেন ফয়েজ উল্লাহ, হাসান সামস উদ্দীন ও ইকবাল হাবিব।

প্রকৌশলী:

এ শ্রেণিতে ঢাকার কেউ পাচ্ছেন না। পাচ্ছেন চট্টগ্রামের মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, রাজশাহীর মো. হাফিজুর রহমান ও বগুড়ার মোহাম্মদ হামিদুল হক।

হিসাবরক্ষক:

এ শ্রেণিতে কার্ড পাচ্ছেন ঢাকার মো. মোক্তার হোসেন, এম বি এম লুৎফুল হাদী ও বিমলেন্দু চক্রবর্ত্তী।

নতুন করদাতা:

এ শ্রেণিতে সাতজনের মধ্যে ঢাকার মিয়া মনিকা রফিকুলোভনা, তাফিজুল ইসলাম পিয়াল ও সাইফুল ইসলাম, সিলেটের রানা মালিক, মোসাম্মাৎ সেলিনা আক্তার ও রাসেল রায় এবং রাজশাহীর মোছা. ছিয়াতুন নেছা।

অন্যান্য:

এলটিইউর করদাতা এ শ্রেণিতে পাচ্ছেন সদর উদ্দিন খান, আবু মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন খান ও নজরুল ইসলাম মজুমদার।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

sixteen − 9 =