Templates by BIGtheme NET
২৮ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১২ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৪ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিজ্ঞান- প্রযুক্তি » ‘স্যোসাল মিডিয়া ব্যবহার করতে লাইসেন্স লাগবে না’

‘স্যোসাল মিডিয়া ব্যবহার করতে লাইসেন্স লাগবে না’

প্রকাশের সময়: অক্টোবর ৩১, ২০১৯, ৭:৪৯ অপরাহ্ণ

প্রযুক্তি ডেস্ক :

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করতে লাইসেন্স লাগবে বলে কিছু গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরটি সঠিক নয় বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। সরকার এ ধরনের কোন সিদ্ধান্ত নেয়নি বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

ফেইসবুকে নিজের ভেরিফায়েড প্রোফাইলে বৃহস্পতিবার বিকেলে দেয়া এক পোস্টে মোস্তাফা জব্বার এ কথা জানান।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ফেইসবুকে পোস্টে বলেন, ‘কোন কোন মিডিয়া খবর প্রচার করছে যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করতে লাইসেন্স লাগবে। এটি সর্বৈব মিথ্যা মিথ্যা। সরকার এ ধরনের কোন সিদ্ধান্ত নেয়নি’।

মন্ত্রী বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমকে বলেন, ফেইসবুক ও ইউটিউবসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের ‘কনটেন্ট’ নিয়ন্ত্রণে ইতিমধ্যে প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি স্থাপন করা হয়েছে। বর্তমানে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু হয়নি।

আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু করতে আরও একটু সময় লাগবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আসলে আমরা এখানে যে পদ্ধতিতে কাজটা করতে চাচ্ছি তাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের একটা ‘লাইসেন্স’ (অনুমতিপত্র) করতে হবে।

একটা ‘সফটওয়্যার ডাউনলোড’ করে খুব সহজে লাইসেন্সটি করা যাবে জানিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সাইট নয়, সেখানে প্রকাশিত ‘কনটেন্ট’ নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে সরকার। দেশের বাইরে বসেও কেউ আপত্তিকর কিছু প্রকাশ করলে তা এখানে দেখা যাবে না।

আমরা যে কোনো ‘কনটেন্ট ব্লক’ (প্রকাশনা অবরুদ্ধ) করতে পারব। আপনার ‘অ্যাকাউন্টের’ একটা ‘কমেন্ট’ আমার মুছে ফেলা দরকার হলে আমি সেটাও মুছে ফেলতে পারব উল্লেখ করে তিনি জানান, তবে বাংলাদেশের বাইরে থেকে সেগুলো দেখা যাবে।

মন্ত্রী বলেন, দেশের বাইরে-তো আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারব না। কারণ ফেসবুক দুনিয়া জুড়ে চলবে। আমরা শুধু বাংলাদেশ ভূখণ্ডে ‘সাইবার’ সুরক্ষা দিতে সক্ষম। পর্ণ সাইটগুলো যেমন শুধু বাংলাদেশে বন্ধ করা হয়েছে, বিভিন্ন কনটেন্ট এবং অন্যান্য ক্ষেত্রেও যেটা হবে সেটা শুধু বাংলাদেশের ক্ষেত্রেই হবে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ফেইসবুক বা ইউটিউবের মতো সাইটগুলোর কাছে বারবার চেয়েও নিয়ন্ত্রণ না পেয়ে বাংলাদেশ বিকল্প পথে সেগুলোর প্রকাশনা নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ নিতে বাধ্য হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

15 + twelve =