Templates by BIGtheme NET
৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২১ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৩ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিশেষ সংবাদ » হতাশ হলেও যে কারণে ঐক্যফ্রন্ট টিকিয়ে রাখতে চায় বিএনপি

হতাশ হলেও যে কারণে ঐক্যফ্রন্ট টিকিয়ে রাখতে চায় বিএনপি

প্রকাশের সময়: অক্টোবর ১৪, ২০১৯, ১:১০ অপরাহ্ণ

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এক বছর পূর্তিতে এর প্রধান শরীক বিএনপি নেতারা মনে করছেন, তাদের এই জোট সর্বশেষ নির্বাচনে এবং পরের এক বছরে দেশের রাজনীতিতে উল্লেখযোগ্য প্রভাব রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। তবে ঐক্যফ্রন্টের ব্যর্থতা নিয়ে প্রকাশ্যে কেউ সমালোচনা না করলেও ভেতরে ভেতরে চাপা ক্ষোভ জমা হচ্ছে জোটের নেতা ও নেত্রীদের মধ্যে। সেই চাপা ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বিএনপির একজন কেন্দ্রীয় নেত্রী এবং সাবেক এমপি নিলুফার চৌধুরী মনি।

সম্প্রতি রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় বিএনপির সাবেক সাংসদ নিলুফার চৌধুরী মনি তার ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এখনও ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে এগুনোর বিষয়ে তাদের প্রশ্ন রয়েছে। প্রত্যেকটা সচেতন মানুষ দেখেছে যে, এই ঐক্যফ্রন্ট দিয়ে আমাদের কতটা লাভ হয়েছে বা হয় নাই। তারপরও তারা কারও সাথে কথা না বলে কাউকে জিজ্ঞেস না করে এই জোট নিয়ে কাজ করছে।

তিনি আরও বলেন, একটা মানুষ যখন ভুল করে তখন তার সংসার এবং সে সাফার করে। একজন রাজনীতিবিদ ভুল করলে তার দল এবং দেশ সাফার করে। এই ভুল করার কথা বলার স্পর্ধা যেমন আমার নেই, তেমনি আমি এটাও বলতে চাই যে আমরা ধাক্কা খাচ্ছি। কিন্তু কোনো সমাধানে আসতে পারছি না। এ ব্যাপারে বিশদভাবে চিন্তা করার জন্য তিনি বিএনপির হাইকমান্ডের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্বের ব্যাপারে কিছু ক্ষেত্রে অবিশ্বাস, সন্দেহ এবং অনেক প্রশ্নও বিএনপিতে রয়েছে। তবে এতোকিছুর পরও দলটি ঐক্যফ্রন্ট ভেঙে দেয়ার পক্ষপাতী না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সরকারবিরোধী শক্তিগুলোকে এক মঞ্চে নেয়ার জন্যে বিএনপি এখনও ঐক্যফ্রন্টকেই টিকিয়ে রাখতে আগ্রহী। তিনি বলেন, নির্বাচনের সময় যে প্রত্যাশা নিয়ে জোট করা হয়েছে, জনগণের সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। কিন্তু এখনও ঐক্যফ্রন্টের প্রয়োজন ফুরিয়ে যায়নি। কারণ ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি এখনও পূর্ণতা পায়নি। আর সে কারণেই ঐক্যফ্রন্টের গুরত্ব রয়েছে বলেও মনে করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

5 × 1 =