Templates by BIGtheme NET
৩০ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ১৫ সফর, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিশেষ সংবাদ » যে পাঁচ ক্যান্সার অজান্তেই মানুষের শরীরে বাসা বাঁধে

যে পাঁচ ক্যান্সার অজান্তেই মানুষের শরীরে বাসা বাঁধে

প্রকাশের সময়: অক্টোবর ৭, ২০১৯, ৩:২১ অপরাহ্ণ

ক্যান্সার হলো এমন একটি অসুখ যখন শরীরের একটা অংশের কোষ অনিয়ন্ত্রিতভাবে বাড়তে থাকে। ক্যান্সারে আক্রান্ত কোষগুলো আশেপাশের টিস্যু এবং অঙ্গকে আক্রমণ করে নষ্ট করে দিতে পারে। পৃথিবীতে মানুষের মৃত্যুর অন্যতম প্রধান কারণ ক্যান্সার।

জানা যায়, সর্বমোট ২০০ এর বেশী টাইপের ক্যান্সার আছে। প্রত্যেকটি আলাদাভাবে নির্ণয় এবং চিকিৎসা করা হয়।

চিকিৎসকদের মতে, ক্যান্সার কিছু কিছু সময় শরীরের এক অংশে শুরু হয়ে আশেপাশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। কিছু ক্যান্সার প্রাথমিক পর্যায়ে একদমই ধরা পড়ে না। কিছু ক্যান্সার নীরবে শরীরে বাসা বাঁধে। এমন পাঁচটি ক্যান্সারের কথা উল্লেখ করেছেন চিকিৎসকরা। নিচে তা তুলে ধরা হলো :

কিডনির ক্যান্সার : এই ক্যান্সারের উপসর্গগুলো দেখেও অনেকে বুঝতে পারেন না। কোমরে ব্যথা, সারাদিন ক্লান্তি বোধ করা, প্রস্রাবে রক্ত যাওয়া এসব প্রাথমিক লক্ষণ। সাধারণ টেস্টে এই ক্যানসার ধরা পড়ে না।

ওভারিয়ান ক্যান্সার : পেটের গভীরে থাকার কারণে এই ক্যানসার ধরা পড়ে না সহজে। মাত্র ২০ শতাংশ ধরা পড়ে। চতুর্থ স্টেজে যাওয়ার পরে এই ক্যানসার ধরা পড়ে। সাধারণত এই ক্যান্সারটি নারীদের বেশি হয়ে থাকে। ক্ষুধামন্দা, ঘন ঘন প্রসাব পাওয়া, তলপেটে ব্যাথা, অল্প খেলেই ভরপেটের অনুভূতি, লোয়ার ব্যাক পেইন এই ক্যান্সারের অন্যতম লক্ষণ।

প্যানক্রিয়াটিক ক্যান্সার : এই ক্যান্সার সহজে ধরা পড়ে না, কারণ এতে রোগী কোনো ব্যথা অনুভব করেন না। ভিতরেই বাসা বাঁধতে থাকে এই ক্যান্সার। এর অন্যতম লক্ষণ হচ্ছে- বমি বমি ভাব, পিঠে ও পেটে ব্যাথা, খাবার গিলতে সমস্যা, জ্বর এবং কাপুনি ইত্যাদি।

যকৃতে ক্যান্সার : এই ক্যান্সারের কোনো উপসর্গ নেই। একেবারে শেষ পর্যায়ে গিয়ে এই ক্যান্সার ধরা পড়ে। ওজন কমে যাওয়া, দুর্বলতা, অল্প আঘাতেই ত্বকে ব্রুইস বা রক্ত জমে কালচে দাগ পড়া ইত্যাদি এর অন্যতম লক্ষণ।

ব্রেন ক্যান্সার : মস্তিষ্কের ক্যান্সারও ধরা পড়তে অনেকটা দেরি হয়ে যায়। তাই কারো ব্যক্তিত্বে পরিবর্তন, কথা জড়িয়ে যাওয়া, হাত-পা কাঁপা এই উপসর্গগুলো দেখলে দেরি না করে চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী অবশ্যই এমআরআই বা সিটিস্ক্যানসহ প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করাতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

12 + twenty =