Templates by BIGtheme NET
২ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ১৬ সফর, ১৪৪১ হিজরী
Home » জাতীয় » জুয়া বন্ধ করতে চাইলে বান্দরবন বদলি করা হয়েছিল: সাবেক আইজিপি

জুয়া বন্ধ করতে চাইলে বান্দরবন বদলি করা হয়েছিল: সাবেক আইজিপি

প্রকাশের সময়: সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯, ১০:৩৮ পূর্বাহ্ণ

পুলিশে কর্মরত থাকাকালে জুয়া বন্ধ করতে গিয়ে রাজনৈতিক চাপের কারণে পিছু হঠতে হয়েছে বলে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন পুলিশের সাবেক আইজিপি নুরুল আনোয়ার। একটি প্রথম শ্রেণীর জাতীয় দৈনিকের সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি এই মন্তব্য করেন।

সাক্ষাৎকারে সাবেক এ আইজি বলেন, বিএনপির শাসনামলে জুয়া বন্ধ করার উদ্যোগ নিলে তৎকালীন সরকার আমাকে বান্দরবন বদলি করেছিল। ক্ষমতাসীনদের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। জুয়া বন্ধ করতে গেলে তৎকালিন ক্ষমতাসীন বিএনপির নেতারা পুলিশ সদস্যদের চাকরিচ্যুত করার হুমকি-ধামকি দিয়ে রাতারাতি বদলি করা হয়।

তিনি আরো জানান, পুলিশ সদস্যরা রাজনৈতিক চাপের কারণে ঝুঁকি নিতে পারেনি। ঝুঁকি না নিয়ে পুলিশ চুপ করে থাকলে তাদের পকেটে কিছু আসতো। বিএনপি সরকারের উপর মহলের এমন পরিস্থিতে পুলিশ চুপ করে থাকাটাই ভালো মনে করে। দেখেও না দেখার অভিনয় করে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ঢাকা শহরের জুয়ার আসর সম্পর্কে পুলিশের না জানার কথা নয়। পুলিশ সবই জানে। তবে রাজনৈতিক সদিচ্ছা ছাড়া জুয়া বন্ধ করার উদ্যোগ নেয়া যায় না। বাংলাদেশের আইনেও জুয়া বন্ধ করার নিদিষ্ট কোনো নির্দেশনা নেই। আদালতে গিয়ে পুলিশ তেমন কোনো সুবিধা পায় না। সরকারের নির্বাহী আদেশ যে অভিযান চলছে তার সাধুবাদ জানান সংশ্লিষ্টরা।

গত কয়েকদিনে ঢাকার চারটি ক্যাসিনোতে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের একটি দল। এ সময় ক্যাসিনোগুলো সিলগালা করার পাশাপাশি সেখান থেকে ১৮২ জনকে আটক করে। তাদের প্রত্যেককে ছয় মাস থেকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত।

এছাড়া জব্দ করা হয় নগদ টাকা, জাল টাকা, জুয়া খেলার সরঞ্জাম, ইয়াবাসহ দেশি-বিদেশি মদ। ঢাকা শহরে জুয়ার আসর নতুন কিছু নয়, যুগ যুগ ধরে চলে আসছে। গত কয়েকদিন ধরে দেশের পত্রপত্রিকা ও টেলিভিশনে ঢালাওভাবে প্রকাশ পাচ্ছে ক্যাসিনোতে সাড়াশি অভিযানের খবর।

সম্প্রতি দলের কার্যনির্বাহী পরিষদের সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, দলে চাঁদাবাজ-সন্ত্রাসীর দরকার নাই। এরা দলকে, রাজনীতিকে কিছু দেয় না। এরা দলের বোঝা। সংশোধন না হলে জঙ্গিদের মতো তাদেরও দমন করা হবে। এ অভিযান তারই অংশ বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

four × five =