Templates by BIGtheme NET
২ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ১৬ সফর, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিবিধ » উট যে কারণে সাপ খায়! আল কোরআনে রহস্য উদঘাটন

উট যে কারণে সাপ খায়! আল কোরআনে রহস্য উদঘাটন

প্রকাশের সময়: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯, ৪:৫৩ অপরাহ্ণ

মোহাম্মাদ এনামুল হক এনা: জীব-জানোয়ারসমূহের বৈশিষ্ট্য ও সৌন্দর্য্য বর্ণনা করে আল কোরআনে বিভিন্ন জায়গায় প্রাণী জগতের বর্ণনা এসেছে। শুধু তাই নয় পবিত্র আল কোরআনে কয়েকটি সূরার নামও রাখা হয়েছে পশু পাখির নামে। তেমনিভাবে সুরা ইউসুফে উটের আলোচনাও রয়েছে।

পবিত্র কোরআনে উটের একটি রোগের আলোচনা আছে, যে রোগ হলে উট একদম খাওয়া দাওয়া ছেড়ে দেয়। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত উট শুধু সুর্যের দিকে তাকিয়ে থাকে। বিশেষজ্ঞগন উটের এ রোগের ব্যাপারে গবেষনা করে কোনো উৎস বা কারণ ব্যাখ্যা করতে পারেনি। এ রোগের নাম হল হায়াম। বিজ্ঞগন বলেন, হায়াম মানে হলো সাপকে জীবিত গিলে ফেলা। অনেকে আবার এ বিষয়ে না জেনেই উটের উপর নানা ধরনের জুলুম করা শুরু করে দেয়।

অথচ মহান আল্লাহ তায়ালা উটের হায়াম নামক এ রোগের শেফা রেখেছে জীবিত সাপকে গিলে ফেলার মাধ্যমে। এ চিকিৎসা দেয়ার সময় উটের চোখ থেকে যে পানি বের হয় তাও চিকিৎসার জন্য খুবই উপকারী পানি বলে জানান চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা।

উটের চোখ থেকে পানি বের হতে থাকা এই পানির ব্যাপারে গবেষকগণ বলেন যে, উটের এ চোখের পানি খুবই মূল্যবান পানি। সে জন্য উটের এ চোখের পানিকে বিজ্ঞ লোকেরা ছোট চামড়ার থলেতে সংরক্ষণ করে রাখে। এ চোখের পানিকে তিরয়াক বলা হয়। আর তিরয়াক এমন এক ঔষধ যা কোনো প্রাণীর বিষকে নষ্ট করার জন্য তৈরী করা হয়। যা বিষক্রিয়া নষ্ট করার চিকিৎসায় কার্যকরী।

উটের এ হায়াম নামক রোগটিকে আল কোরআন মাজিদে জাহান্নামীদের শাস্তির সাথে তুলনা করে বয়ান করা হয়েছে যার অর্থ এমন, অতঃপর তোমরা তা পান করবে তৃষ্ণাতুর উটের ন্যায়। [ সুরা ওয়াক্বিয়া ৫৬:৫৫ ]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

19 − nine =