Templates by BIGtheme NET
১ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৬ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী
Home » আন্তর্জাতিক » পাকিস্তানি সেনা-জঙ্গিদের সাংকেতিক ভাষা উদ্ধার, দাবি ভারতীয় গোয়েন্দাদের

পাকিস্তানি সেনা-জঙ্গিদের সাংকেতিক ভাষা উদ্ধার, দাবি ভারতীয় গোয়েন্দাদের

প্রকাশের সময়: সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯, ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ

পাকিস্তানি সেনাদের ব্যবহার করা গোপন সাংকেতিক ভাষা উদ্ধার করার দাবি করেছেন ভারতের গোয়েন্দারা। এই ভাষা বা কোড ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করে পাকিস্তান মদতপুষ্ট জঙ্গিরাও। এমনই জানা গিয়েছে গোপন সূত্রে।

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, বেশ কয়েকটি কোড ওয়ার্ড পাওয়া গিয়েছিল, যা ভাবাচ্ছিল গোটা গোয়েন্দা দফতরকে। মনে করা হচ্ছিল এর সঙ্গে নাশকতার চালানোর বিশেষ যোগ রয়েছে, বিশেষ কিছু বার্তা দেওয়া রয়েছে এই সাংকেতিক ভাষাগুলোতে। তারপরই সাংকেতিক ভাষাগুলো উদ্ধার করতে কাজে লেগে পড়েন গোয়েন্দারা।

যে শব্দগুলো পাওয়া গিয়েছিল সেগুলো হল, JeM (66/88), LeT (A3) and Al Badr (D9)৷ ১২ আগস্ট গ্রেফতার হওয়া জঙ্গিদের কাছ থেকে এই শব্দগুলো উদ্ধার করা হয়।
জানা যায়, পাকিস্তানি সেনা ও বেশ কয়েকটি জঙ্গি সংগঠন এই শব্দগুলো বেতার তরঙ্গের মাধ্যমে আদান প্রদান করত। মুলত পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরে তৈরি করা বেতার স্টেশন থেকে এই বার্তা যেত।। জম্মু কাশ্মীরে হামলা চালানোর পিছনে এই ধরনের বার্তার বিশেষ ভূমিকা রয়েছে বলে সন্দেহ গোয়েন্দাদের।

সম্প্রতি জানা গেছে, ভেরি হাই ফ্রিকোয়েন্সি ব্যবহার করে পাকিস্তানি সেনা বার্তা আদান প্রদান করছে। ভারতের সীমান্তের খুব কাছেই এই বার্তা আদান-প্রদানের জন্য রেডিও স্টেশন তৈরি করা হয়েছে।

গোয়েন্দাদের ধারণা, ভারতের সীমান্তের কাছে বা ভারতীয় সেনার ব্যবহার করা কিছু বার্তাও গোপনে শুনতে চাইছে পাকিস্তান।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানি সেনাদের ব্যবহার করা কোডগুলো ব্যবহার করছে তাদের মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তইবা, জইশ-ই-মুহম্মদের একাধিক গোষ্ঠী। এরা কাশ্মীরে গড়ে তোলা কিছু মডিউলকে এই কোড ভাষা শিখিয়ে কাজে লাগাচ্ছে বলে গোয়েন্দার সূত্রের খবর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

2 × three =