Templates by BIGtheme NET
২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ৯ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিবিধ » ভূতের সঙ্গে বিয়ে!

ভূতের সঙ্গে বিয়ে!

প্রকাশের সময়: সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯, ৮:২৪ অপরাহ্ণ

সাধারণত মানুষের সঙ্গে মানুষের বিয়ে হয়ে থাকে। কিন্তু এরকম অদ্ভুত এবং আজব বিয়ে কেউ কোনওদিন দেখেওনি, শোনেনওনি। পাত্রী রক্তমাংসের মানুষ হলেও পাত্র অশরীরি। অন্তত এমনই দাবি করছেন আয়ারল্যান্ডের বাসিন্দা আমান্ডা টিগ। তাঁর দাবি, তিনি একজন ৩০০ বছরের পুরনো ভূতকে বিয়ে করেছেন।

২০১৬ সালের জুলাই মাসে আমান্ডা টিগ দাবি করেন তিনি আইনতভাবে বিয়ে করেছেন ৩০০ বছরের পুরনো ভূত জ্যাক টিগকে। যিনি ১৭০০ সালে মারা গিয়েছিলেন। তবে সবচেয়ে বিস্ময়কর বিষয় হল, জ্যাক নাকি দারুণ যৌন সুখ দিতে পারে, আমান্ডা এর আগে কখনও এই অনুভূতি কোনও মানুষের থেকে পাননি। ব্রিটেন বা আয়ারল্যান্ডে ভূতকে বিয়ে করার ঘটনা এর আগে কোনওদিন শোনা যায়নি। ৪৫ বছরের আমান্ডা দ্বিতীয়বার তার ভূত স্বামী জ্যাককে বিয়ে করলেন ২০১৭ সালে ছোট্ট একটি বোটে।

ভূতের প্রেমে পাগল আমান্ডার শুরুটা হয়েছিল পর্দার জ্যাক স্প্যারো ওরফে জনি ডেপকে দেখে। জলদস্যুদের জীবনের প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন আমান্ডা। এমনকী নিজের গায়ে স্প্যারোর মতো ট্যাটুও করিয়েছিলেন তিনি। ঘটনাচক্রে যে জলদস্যুর ভূতের সঙ্গে তিনি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তার নামও জ্যাক। চার সন্তানের মা আয়ারল্যান্ডে নিজের শোওয়ার ঘরে একদিন শুয়ে ছিলেন। সেই রাতে তার ঘরে প্রবেশ করেন ৩০০ বছরের পুরনো জলদস্যু জ্যাকের অশরীরি। প্রায় ছ’মাস তাদের দু’জনের মধ্যে নাকি শারীরিক সম্পর্কও হয়। এরপরই তারা বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন।

আর দশটা স্বাভাবিক বৈবাহিক সম্পর্কের মতই আমান্ডা ও জ্যাক ঝগড়া করেন, সপ্তাহান্তে রোম্যান্টিক ড্রাইভে যান, এমনকী একে–অপরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ মুহূর্তও কাটান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

thirteen − 6 =