Templates by BIGtheme NET
২৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ১০ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
Home » খেলাধূলা » টেনিসের নতুন রানী বিয়াঙ্কা আন্দ্রেয়েস্কো

টেনিসের নতুন রানী বিয়াঙ্কা আন্দ্রেয়েস্কো

প্রকাশের সময়: সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯, ৪:১৭ অপরাহ্ণ

ক্রীড়া প্রতিবেদক :  ১৯৯৪ সাল। দুটি সুটকেস নিয়ে সস্ত্রীক নিকু আন্দ্রেয়েস্কো পাড়ি জমান কানাডা। রোমানিয়ার বাসিন্দা নিকু ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার। চাকরি নিয়ে চলে এসেছিলেন কানাডায়। স্ত্রী মারিয়াও চাকরি নেন টরন্টোর একটি সংস্থায়। কয়েক বছর পরে সংসারে আসে নতুন অতিথি। ২০০০ সালের ১৬ জুন জন্ম হল আন্দ্রেয়েস্কো দম্পতির কন্যার। নাম রাখা হল বিয়াঙ্কা আন্দ্রেয়েস্কো।

তখনও সিদ্ধান্ত নিতে পারছিলেন না কোথায় স্থায়ী হবেন আন্দ্রেয়েস্কো পরিবার। রোমানিয়া না কানাডায়, স্বামী নিকুকে রেখেই সাত বছরের মেয়েকে নিয়ে রোমানিয়া ফিরে আসেন মারিয়া।

রোমানিয়ায় ঠাকুমা ও দিদিমার কাছে শৈশবের একটা বড় সময় কেটেছে বিয়াঙ্কার। সেখান থেকেই হাতেখড়ি টেনিসের। এর মাঝেই কয়েক বছর পরে মায়ের সঙ্গে বিয়াঙ্কা চলে গেল কানাডায় বাবার কাছে। কানাডায় স্থায়ীভাবে থাকবেন, তখন সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন আন্দ্রেয়েস্কো দম্পতি।

রোমানিয়া থেকে স্মৃতির সঙ্গে আর যা নিয়ে গেলেন বালিকা বিয়াঙ্কা, তা হল টেনিস খেলার নেশা। তখন তার আদর্শ কিম ক্লাইস্টার্স। পরবর্তীকালে তার পছন্দের তারকার তালিকায় এসেছেন সিমোনা হালেপ ও উইলিয়ামস বোনেরা।

টরেন্টোর টেনিস কানাডার প্রশিক্ষণে ভর্তি হয়ে যান বিয়াঙ্কা। সেখানেই চর্চা শুরু টেনিসের। তারপরে আর পিছনে ফিরতে হয়নি তাকে। ২০১৪ সালে প্রথম জুনিয়র খেতাব অর্জন। পরের বছর ইন্টারন্যাশনাল টেনিস ফেডারেশনে আত্মপ্রকাশ। তার পরের বছর আইটিএফ খেতাব।

চলতি বছরেই জয়ী হয়েছেন ইন্ডিয়ান ওয়েলস ওপেন ও কানাডিয়ান ওপেন। তবে সবচেয়ে বড় চমক অপেক্ষা করেছিল যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের জন্য। ইতিহাস গড়লেন বিয়াঙ্কা। সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে প্রথম কানাডীয় নারী হিসাবে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতলেন তিনি।

২০০৬ সালে মারিয়া শারাপোভার পর কনিষ্ঠতম নারী হিসাবে ১৯ বছর বয়সী আন্দ্রেয়েস্কো নিজের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতলেন। ছুঁয়ে ফেললেন মনিকা সেলেসকে। তার খেলার মধ্যে কিম ক্লিস্টার্সের ছোঁয়া খুঁজে পান বিশেষজ্ঞরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

17 + 5 =