Templates by BIGtheme NET
৮ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ২২ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী
Home » আন্তর্জাতিক » আসামের পর এবার মহারাষ্ট্রে এনআরসি!

আসামের পর এবার মহারাষ্ট্রে এনআরসি!

প্রকাশের সময়: সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯, ২:৫৫ অপরাহ্ণ

আসামে নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি’র রেশ এখনও কাটেনি। সুতায় ঝুলে আছে ১৯ লাখ মানুষের ভবিষ্যৎ, যাদের নাম ওঠেনি এনআরসি’র চূড়ান্ত তালিকায়। এর মধ্যেই ভারতের আরেক রাজ্য মহারাষ্ট্রে এনআরসি তৈরির তোড়জড়ের খবর সামনে এল।

ভারতীয় গণমাধ্যম মারফত জানা যায়, অনুপ্রবেশকারীদের জন্য ডিটেনশন সেন্টার তৈরির কাজে জমি চেয়ে মুম্বাই প্ল্যানিং অথরীটিকে চিঠি পাঠিয়েছে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র দফতর।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মুম্বাই থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরের নেরুলে ২ থেকে ৩ একর জমি চেয়ে সিটি অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভলপমেন্ট করপোরেশন সিডকো’র কাছে চিঠি পাঠিয়েছে ওই রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতর।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সিডকো’র এক শীর্ষ কর্তা সংবাদমাধ্যমের কাছে এই খবরের সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, চলতি বছরের শুরুতে দেশের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ ইমিগ্রেশন পয়েন্টে ডিটেনশন সেন্টার তৈরির জন্য কেন্দ্রের পক্ষে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছিল।

এদিকে, মুম্বাইতেও অনুপ্রবেশকারীতে ভরে গেছে দাবি করেছে মহারাষ্ট্র কেন্দ্রীক হিন্দু জাতীয়তাবাদী দল শিবসেনা। যে কারণে আসামের মতো মহারাষ্ট্রে এনআরসি চালুর দাবি জানিয়েছে তারা।

গত সপ্তাহে শিবসেনা প্রধান অরবিন্দ সাওয়ান্ত বলেন, ভূমিপুত্রদের সমস্যা সমাধানের জন্য আসামে এনআরসি’র প্রয়োজন ছিল। যে কারণে আমরা এনআরসি’র পদক্ষেপকে সমর্থন করেছিলাম। একইভাবে মুম্বাইয়ে বসবাসকারী অনুপ্রবেশকারীদের তাড়াতে একই পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন। এই প্রেক্ষাপটে মুম্বাইয়ের কাছে ডিটেনশন সেন্টার তৈরির খবরটি সামনে এল।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের শুরুর দিকে দেশটির বিজেপি নেতা ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছিলেন, ভারতের মাটির প্রতিটি ইঞ্চিতে থাকা অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করতে চায় সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

14 − three =