Templates by BIGtheme NET
২ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৭ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিনোদন » রেলস্টেশন থেকে সোজা মুম্বাইয়ের স্টুডিওতে সেই রানু মণ্ডল

রেলস্টেশন থেকে সোজা মুম্বাইয়ের স্টুডিওতে সেই রানু মণ্ডল

প্রকাশের সময়: আগস্ট ২৪, ২০১৯, ৯:৫৭ পূর্বাহ্ণ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রানাঘাট স্টেশনে গান শুনিয়ে ভিক্ষে করতেন রানু মণ্ডল। তার সুরেলা কণ্ঠে গান শুনে অবাক হয়ে যেত মানুষ। ভিড় করত তার চারপাশে।

সেই ভবঘুরে শিল্পী রানু মণ্ডলের গাওয়া একটি গান ‘এক প্যায়ার কে নাগমা ’ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর পরই তিনি রাতারাতি বিখ্যাত হতে ওঠেন।

তারপর থেকে ভারত ও বাংলাদেশ থেকে অনেক অফার আসতে থাকে। এমনকি একটি রিয়্যালিটি শো থেকেও ডাক পান তিনি। কিন্তু পরিচয় পত্র না থাকার কারণে সমস্যা হতে শুরু করে।

কিন্তু স্বপ্ন যে তার এভাবে বাস্তব রূপ নেবে হয়তো তিনি নিজেও ভাবতে পারেননি। অবাক করার বিষয় হলো ভাইরাল হওয়া গায়িকা রানু মণ্ডল প্রথম গান গাইলেন প্রখ্যাত শিল্পী হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে। রানাঘাটের স্টেশনে ভিক্ষে করা থেকে প্রখ্যাত শিল্পীর সঙ্গে গান করা রানুর কাছে স্বপ্নের থেকে কম কিছু নয়।

হিমেশ রেশমিয়ার নজরে পরে যাওয়াতে তার হ্যাপি হার্ডি এবং হিট ছবির জন্য একটি গান রেকর্ড করলেন তিনি।কদিনের মধ্যেই রানু কে দেখা যাবে একটি জনপ্রিয় রিয়ালিটি শোতে।

গায়ক ইমেশ রেশমিয়া তার ট্যুইটারে রেকর্ডিঙের ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন তার নিজের ছবি হ্যাপি হার্ডির জন্য গানের রেকর্ডিং করালেন তিনি। ছবিতে অভিনয় করেছেন হিমেশ নিজেই। আর সেই ছবিতে প্লে ব্যাক করছেন রানু।

শিশু কণ্ঠশিল্পীদের রিয়েলিটি শো ‘সুপারস্টার সিঙ্গার’র বিচারক হিমেশ রেশামিয়া, অলোকা ইয়াগনিক ও জাভেদ আলি। সেখানেই হিমেশ আমন্ত্রণ জানালেন রানু মণ্ডলকে। শুধু তাই নয়, রানুকে বলিউডের সিনেমায় গান গাওয়ার সুযোগও করে দিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে হিমেশ বলেন, ‘সালমান ভাইয়ের বাবা সেলিম খান আঙ্কেল একদিন আমাকে উপদেশ দিয়েছিলেন, জীবনে যদি কখনও কোনো প্রতিভাবান মানুষের সংস্পর্শ পাই, আমি যেন তাকে হারিয়ে যেতে না দিই, বরং তাকে আমার সান্নিধ্যে রাখি। তার প্রতিভাকে বিকশিত হতে সহযোগিতা করতে বলেছিলেন তিনি।’

তিনি বলেন, ‘আজ আমি রানুদির সাক্ষাৎ পেয়েছি। আমি অনুভব করি, তিনি ঐশ্বরিকভাবেই আশীর্বাদপুষ্ট। তার গান আমাকে মোহিত করে। আমার পক্ষ থেকে যতটুকু করা সম্ভব আমি তার সর্বোচ্চটুকু তার জন্য করেছি। তার কাছে ঈশ্বরের একটি উপহার আছে যা গোটা দুনিয়ার ছড়িয়ে দেয়া প্রয়োজন।’

তিনি আরও বলেন, তার সুললিত কণ্ঠস্বর সবার কাছে পৌঁছে দিতে আমি সহযোগিতা করব। আমার আগামী সিনেমা ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হীর’তে তিনি গান করবেন। তার প্রথম সিনেমার গান হতে যাচ্ছে ‘তেরি মেরি কাহানি’।

এ ছাড়া কলকাতার এক পূজায় এ বার থিম সং গাইবেন রানু মণ্ডল।

মুম্বাইয়ের বাবুল মণ্ডলের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল রানু মণ্ডলের। স্বামী মারা যাওয়ার পর রানাঘাটে ফিরে আসেন তিনি। রেলস্টেশনে ঘুরে ঘুরেই গান গাইতেন। তারপর তার গাওয়া গানের ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় ফেসবুকে। এবার স্টেশন থেকে সেই রানু সোজা পৌঁছে গেলেন মুম্বাইয়ের গান রেকর্ডিং স্টুডিওতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

13 − one =