Templates by BIGtheme NET
১১ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৬ আগস্ট, ২০১৯ ইং , ২৩ জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী
Home » ধর্ম ও জীবন » যাদের ওপর হজ ফরজ কিন্তু কবুল হবেনা

যাদের ওপর হজ ফরজ কিন্তু কবুল হবেনা

প্রকাশের সময়: আগস্ট ৯, ২০১৯, ৪:০৬ অপরাহ্ণ

মোহাম্মাদ এনামুল হক এনা: বান্দার সঙ্গে আল্লাহর সেতুবন্ধনের উপায় হলো হজ পালন। যার সামর্থ্য আছে তার জন্য হজব্রত পালন ফরজ। রাসূলে করিম (সা.) বলেছেন, যে ব্যক্তি সঠিকভাবে হজ পালন করেন তিনি আগের সব গুনাহ থেকে নিষ্পাপ হয়ে যাবেন।

যাদের উপর হজ ফরজ: হজ ফরয হওয়ার শর্তসমূহ হচ্ছে (১) মুসলমান হওয়া (২) বালেগ হওয়া (৩) সুস্থ মস্তিষ্কের অধিকারী হওয়া (৪) হজ করার মত দৈহিক ও আর্থিক সামর্থ হওয়া(৫) যাতায়াতের পথ নিরাপদ হাওয়া (৬) মহিলাদের জন্য মুহরেম সঙ্গী সাথে থাকা।

হজের করণীয়: ১. ৮ ই জ্বিলহজ্জ মিনায় অবস্থান করা। ২. ৯ই জ্বিলহজ্জ আরাফাতে অবস্থান, তালবিয়াসহ যিকির, দোয়া, তাওবা, আরাফাতের খুতবা শ্রবণ ও জোহর আসর একত্রে আদায় করা। ৩. সন্ধ্যার সময় মুযদালিফায় গমন করে মাগরিব ও ইশার সালাত আদায় করা। ৪. ১০ই জ্বিলহজ্জ প্রভাতের পর মুযদলিফা হতে মিনায় গমন ও দ্বিপ্রহরের পূর্বে যুমরায় আকাবায় ৭টি কংকার নিক্ষেপ ও কুরবানীর পর ইফরাদ ও তামাত্তো হজ্জ আদায়কারীগণ মাথা মুন্ডন বা চুল কর্তন করে ইহরাম খোলা, অতঃপর বিকালে কাবাঘর ৭ বার তাওয়াফ, মাকামে ইব্রাহীমে দু’রাকাত নামায আদায় করে, সাফা মারওয়া ৭ বার দৌড়াদৌড়ি করতে হবে। ৫. ১১ ও ১২ই জ্বিলহজ্জ মিনায় অবস্থান ও পুর্বের ন্যায় ৭টি কংকর নিক্ষেপ করা। ১২ তারিখ আসর পর্যন্ত মিনায় অবস্থান করলে ১৩ তারিখে ও পুনঃ তিন জায়গায় ২১টি কংকর নিক্ষেপ করতে হবে। ৬. অতঃপর দেশে আসার আগে পুনঃ কাবাঘর ৭ বার তাওয়াফ করতে হবে।

হজ পালন প্রসঙ্গে রাসুল (সা.) বলেন, পানি যেমন ময়লা আবর্জনা ধুয়ে মুছে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে দেয় তদ্রুপ হজও গুণাহ বিদূরিত করে পবিত্র করে দেয়।

প্রখ্যাত আলেমেদ্বীন আল্লামা মিজানুর রহমান আল আজহারি এক মাহফিলে বলেন, যখন কেউ হজের নিয়ত করে এবং হজ করার উদ্দেশ্যে সফরে রওনা দিয়ে সওয়ারিতে বসে লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক বলে তখন হজের টাকা হালাল হয়ে থাকলে ফেরেশতারা তার জবাবে বলে তোমার হজ কবুল হয়েছে। আর হজের টাকা পয়সা যদি হারাম হয়ে থাকে, এক টাকাও যদি হারাম মিশ্রিত থাকে তাহলে সওয়ারিতে বসে লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক যখন বলবে তখন ফেরেশতারা ঘোষণা করতে থাকে “তোর হজ কবুল হবেনা, তোর হজ তোকেই ফিরিয়ে দেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

2 + 3 =