Templates by BIGtheme NET
২৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ১৩ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী
Home » বিশেষ সংবাদ » মানুষ হত্যা : পদ্মাসেতু কি আসলেই কাটা মাথা চায়?

মানুষ হত্যা : পদ্মাসেতু কি আসলেই কাটা মাথা চায়?

প্রকাশের সময়: জুলাই ৯, ২০১৯, ৩:৫৪ অপরাহ্ণ

আমরা জানি সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে তৈরি হচ্ছে পদ্মাসেতু। এটা সত্যিই গর্বের। কিন্তু এই গর্ব সহ্য হচ্ছে না কিছু বিশেষ মহলের কাছে। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সরব হয়েছে এমনই একটি গ্রুপ টিম আন্ডার কাভার ৭৫০।

জানা গেছে, পদ্মাসেতু নির্মাণ করতে ও সেতু শক্ত করতে এক লক্ষ বা তার অধিক মানুষের কাটা মাথা প্রয়োজন। আর এটা করতে পারলেই নাকি তৈরি হবে স্বপ্নের পদ্মাসেতু।

শুধু তাই নয়, ওই গ্রুপে এটাও বলা হচ্ছে, বাংলাদেশ সরকারের সহায়তায় পদ্মাসেতুর কাজ চালাতে চীনা কোম্পানি সারা বাংলাদেশ জুড়ে ৪২টি দল বেড় করেছে এই মাথা সংরক্ষনের জন্য। এরা পথে ঘাটে খেলার মাঠে হাট বাজারে ইত্যাদি স্থানে ঘুরে বেড়ায়। এদের কাছে আছে ধারালো ছুরি ও বিষাক্ত গ্যাস। যা স্প্রে করলে ১০ থেকে ১৫ গজের মধ্যে মানুষ অজ্ঞান হয়ে যায়। ইতোমধ্যে খুলনা ও রাজশাহীতে ১০ থেকে ১৩ জনের মাথাবিহীন লাশ পাওয়া গিয়েছে।

এদিকে, প্রশ্ন উঠছে, আসলেই কি তাই? এটা কোনো যুক্তিসঙ্গত কথা? বলা যায়, দেশে বেড়ে গেছে ধর্ষণ, নারী ও শিশু পাচার। তাই বলে পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা দিতে হবে এটাও কি সম্ভব?

ইতোমধ্যে এরকম খবর ছড়িয়ে পড়েছে পদ্মানদী সংলগ্ন রাজবাড়ি সদর উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে। যেখানে গত ১৫ দিনে তিন নারী ও এক শিশুকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

জানা গেছে, নিহত হওয়া প্রত্যেক নারীর ময়নাতদন্তে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গিয়েছে। এ বিষয়ে রাজবাড়ির সদর থানার ওসি মোহাম্মদ তারিক কালাম বলেন, সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে হত্যাকারিদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। খুব শিঘ্রই হত্যার রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকারিদের আটক করা হবে।

এখন যারা অতি উৎসাহী তারা হয়তো বলে থাকতে পারেন, এটা কোনো অলৌকিক ব্যাপার। সত্যি মানুষের মাথা লাগে। কিন্তু তাই যদি হয় তাহলে প্রশ্ন হচ্ছে বাংলাদেশে এতো সেতু হচ্ছে বা হয়েছে সেখানে মানুষের কাটা মাথা লাগেনি কেন? তাই যদি হয়, তাহলে প্রশ্ন আসবে কোন সোর্স থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে যে পদ্মাসেতুতে মানুষের মাথা লাগবে। ফেসবুক থেকে?

আসলে ফেসবুক এমনই একটি স্থান যেখানে গুজব রটনাকারীদের একটি স্থান। যেখানে সাধারণ মানুষকে ধোকা দেয়া হয়। আবার ফেসবুক এমনই একটি স্থান যেখানে সাধারণ মানুষের সত্য তুলে ধরার আদর্শ একটি স্থান। এ ধরনের গুজব থেকে দূরে থাকুন। গুজব ছড়াবেন না। গুজবে কান দেবেন না। গুজব রটনাকারিদের চিহ্নিত করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীদের কাছে সোপর্দ করুন।

এদিকে পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে- এমন গুজবে কান দিয়ে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, পদ্মা সেতু নির্মাণকাজ পরিচালনায় মানুষের মাথা লাগবে বলে একটি কুচক্রী মহল বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে অপপ্রচার চালাচ্ছে তা প্রকল্প কর্তৃপক্ষের নজরে এসেছে। আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই, এটি একটি গুজব। এর কোনো সত্যতা নেই। এমন অপপ্রচার আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ ধরণের গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য দেশবাসীকে অনুরোধ করা যাচ্ছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

eighteen − 10 =