Templates by BIGtheme NET
১০ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৪ জুন, ২০১৯ ইং , ২০ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী
Home » বিশেষ সংবাদ » উত্তপ্ত হচ্ছে সংসদ, ঐক্যবদ্ধ সকল বিরোধী দল

উত্তপ্ত হচ্ছে সংসদ, ঐক্যবদ্ধ সকল বিরোধী দল

প্রকাশের সময়: জুন ১০, ২০১৯, ৭:১৫ অপরাহ্ণ

আগামী ১১ জুন জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন শুরু হচ্ছে যাচ্ছে। এই অধিবেশনে সরকারের বিভিন্ন অসঙ্গতি তুলে ধরতে ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে বিরোধী দলগুলো। এতে নিঃসন্দেহে দীর্ঘদিন পর উত্তপ্ত হবে সংসদ।

জানা যায়, এবারের বাজেট অধিবেশনে বিভিন্ন বিষয়ে আওয়ামী লীগকে সমালোচনাবিদ্ধ করার পরিকল্পনা তৈরি করেছে সংসদের বিরোধী দলগুলো। জাতীয় পার্টি প্রথমবারের মতো গৃহপালিত বিরোধীদলের খোলস ছেড়ে সত্যিকারের বিরোধীদল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করার পরিকল্পনা করেছে। মূলত তারেক রহমানের প্রেসক্রিপশনেই বিরোধী দলগুলো একত্রিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে একটি সূত্র।

ইতোমধ্যে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যদেরকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানা গেছে। যেখানে তিনি সরকার নেতিবাচক কর্মকাণ্ডগুলো নিয়ে সংসদে গঠনমূলক সমালোচনা করতে নেতাদের নির্দেশনা দিয়েছেন।

এদিকে বিএনপি, গণফোরাম ছাড়াও ১৪ দলের দুটি শরীক দল জাসদ এবং ওয়ার্কার্স পার্টি বিভিন্ন ইস্যুতে সরকারের সমালোচনা করবে বলে একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র নিশ্চিত করেছে।

বিরোধীদলগুলোর পক্ষ থেকে যেসব ইস্যুকে সামনে আনা হবে তার মধ্যে রয়েছে- কৃষকদের দুরাবস্থা, ধানের ন্যায্যমূল্য, ভেজাল বিরোধী অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া কর্মকর্তাদের আকস্মিকভাবে বদলি, চাঁদ বিভ্রাট, ঋণ খেলাপিদের বিভিন্নরকম সুযোগ সুবিধা দেওয়া এবং নারী নির্যাতনের উদ্বেগজনক বৃদ্ধি ইত্যাদি।

এ সম্পর্কে নাম প্রকাশ না করা শর্তে জাতীয় পার্টির একজন শীর্ষ নেতা বলেন, গত সংসদে আমরা যথাযথভাবে বিরোধীদলের ভূমিকা পালন করতে পারিনি। কিন্তু এবার জাতীয় পার্টি বিরোধীদল হিসেবেই সংসদে গঠনমূলক ভূমিকা রাখবে।

সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেন, আমরা সবসময় সরকারের গঠনমূলক সমালোচনা করার নীতিতে বিশ্বাসী। যে সমস্ত বিষয় জনগণের জন্য ইতিবাচক নয় সেগুলো আমরা সংসদে তুলে ধরবো।

অন্যদিকে, বিএনপির ৬ সংসদ সদস্য খালেদা জিয়ার মুক্তি ইস্যুতে সংসদ উত্তপ্ত করার পরিকল্পনা করছেন। এ সম্পর্কে সদ্য শপথ গ্রহণ করা বিএনপি নেত্রী রুমিন ফারহানা বলেন, তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। জামিন তার অধিকার। তাই মুক্তির ইস্যুটিই আসন্ন অধিবেশনে প্রধান ইস্যু হিসেবে উপস্থাপন করা হবে।

এছাড়া গণফোরামে দুই সদস্য সুলতান মনসুর ও মোকাব্বির খান দুর্নীতি ও ধানের ন্যায্যমূল্য নিয়ে আর আওয়ামী লীগের দুই শরিক ওয়ার্কাস পার্টি ও জাসদ ধানের ন্যায্যমূল্য ও নারী নির্যাতন বিষয়ে আলোচনা করার কথা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

eighteen − seven =